কমছে শাঁখারি, হারিয়ে যেতে পারে শাঁখারি পেশা

কাজী রফিকুল ইসলাম, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৫:০২

শাঁখারিবাজার। পুরান ঢাকার এক পরিচিত নাম। শাঁখা থেকে শাঁখারিদের বাজার এটি। সনাতন ধর্মের অনুসারী মেয়েরা হাতে শাঁখা পরে। আর এই শাঁখা যারা তৈরি করেন তাদের বলা হয় শাঁখারি। ভারতবর্ষ থেকে এখানেই বসছে এই শাঁখারিদের দোকান। সেই থেকে এটি শাঁখারিবাজার। নামের সাথে যথেষ্ঠ সুবিচার রয়েছে স্থানটির। টিকে আছে সেই শাঁখারি পেশা। তবে, সময়ের সাথে বদলে যাচ্ছে অনেক কিছু। দিন দিন কমছে শাঁখারির সংখ্যা।

বর্তমানে যারা শাঁখারি রয়েছেন তাদের প্রায় সকলেই বংশগতভাবে এ পেশায় এসেছেন। ধরে রেখেছেন ঐতিহ্য। তবে যুগের সাথে তাল মেলাতে ব্যস্ত অনেকেই। ঝুঁকছেন ভিন্ন পেশায়। ফলে শাঁখারিবাজারেই শাঁখারিরা হতে যাচ্ছেন সংখ্যালঘু। মূলত, যারা এখানে শাঁখা বিক্রি করেন, তারা সবাই শাঁখা তৈরি করেন না। মূল শাঁখারিদের 'নুন আনতে পানতা ফুরোয়' অবস্থা।

শাঁখারি বিক্রেতা সুমন দাস ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আমার বাবা এ ব্যবসা করেছে, আমি করছি। আমার ছেলে করবে কিনা তা তো বলতে পারছি না। সবাই তো এদিকে আসে না। আমার পাশের অনেক দোকানদার আছে, যাদের ছেলেরা বাহিরে অন্য ব্যবসা করে। সবই নির্ভর করবে সন্তানের ইচ্ছা উপর। আমি চাইলেই তো আর সব কিছু হবে না।’

একই সুরে সুর মেলালেন এখানকার আরেক ব্যবসায়ী সুবীর চন্দ্র দাস। ঢাকাটাইমসকে তিনি জানান, ‘আমাদের এখানে সবাই কিন্তু শাঁখা-শাঁখ বানায় না। আমাদের কিছু লোক আছে, ওরা মাল দিয়ে যায়। আমরা বিক্রি করি। কিন্তু যারা দিয়ে যায় তারা এখন অনেক কমে গেছে। যারাই আছে তারাও দেখেন কোনদিন না থাকে। আয় নাই। থাকবো কেমনে?’

শাঁখা এবং শাঁখ সারা বছরই বিক্রি হয়। তবে, বর্তমান সময়ে অর্থাৎ দুর্গাপূজার আগে হয় বছরের সবচেয়ে বেশি বেচাকেনা। এই সময় শাঁখারিরা কিছুটা আয় করতে পারে। বছরের অন্যান্য সময়ে নামমাত্র আয়ে টিকে থাকেন তারা। এ সময় শাঁখারিরা শাঁখারি তৈরির পাশাপাশি অন্যান্য কাজে ঝুঁকছেন বলে জানা যায়।

বাজারের ব্যাগ হাতে শাঁখারিবাজারে দেখা গেল এক শাঁখারিকে। ব্যাগ ভরা শাঁখা। তিনি স্বপরিবারের তা তৈরি করেন এবং শাঁখারিবাজারের দোকানদারদের কাছে পাইকারি দামে বিক্রি করেন। নিখিল কর্মকার নামের এই শাঁখারি ঢাকাটাইমসকে জানান, ‘বাসায় বানাই। আপনার বৌদিও সাহায্য করে। এখানে পাইকারি দিয়া যাই। আমার কোনো দোকান নাই। আপনারের আর্শিবাদে ভাল আছি।’

সতের শতকে ঢাকায় আসে শাঁখারিরা। গত তিনশ বছরের ঐতিহ্য লালন করে এখনো টিকে আছে পুরান ঢাকার শাঁখারিবাজার। যুগের পালা বদলে অধিকাংশ শাঁখারি সন্তান ঝুঁকছেন ভিন্ন পেশায়। অন্যদিকে উপার্জন ভাল না হওয়ায়, অনেক শাঁখারি এখন তার পেশায় অনিয়মিত। ফলে, ধীরেধীরে হারিয়ে যাচ্ছে বাংলার ঐতিহ্যের ধারক শাঁখারি পেশা।

ঢাকাটাইমস/২৬সেপ্টেম্বর/কারই/কেএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত