রোহিঙ্গাদের ভারতে আশ্রয় দেয়া হোক: বরুণ গান্ধী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ২২:১৪ | প্রকাশিত : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ২১:৫৩

ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)’র তরুণ সাংসদ বরুণ গান্ধী বলেছেন, মিয়ানমারে সহিংসতার শিকার হয়ে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের ভারতে আশ্রয় দেয়া উচিত। যদিও বিজেপি কেন্দ্রীয় সরকার রোহিঙ্গাদের আশ্রয়ের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে।

মঙ্গলবার এনডিটিভি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতের নবভারত পত্রিকার সম্পাদকীয় পাতায় রোহিঙ্গাদের সমর্থনে একটি প্রতিবেদন লিখেছেন বরুণ গান্ধী।

সেখানে তিনি বলেছেন, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের তাড়িয়ে না দিয়ে তাদের সঙ্গে মানবীয় আচরণ করা উচিত।

উত্তর প্রদেশের সুলতানপুরের ৩৭ বছর বয়সী এই বিজেপি সাংসদ মিয়ানমারে চলা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের মধ্যে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের ঠেলে না দেয়ারও কথা বলেন।

বরুণ গান্ধীর এই বক্তব্যের সমালোচনা করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হংসরাজ আহির বলেছেন, বরুণ গান্ধীর এই বক্তব্য দেশের স্বার্থবিরোধী।

হংসরাজ আহির বলেন, 'রোহিঙ্গার মিয়ানমারে সমস্যার সৃষ্টি করছে এবং সরকারের বিপক্ষে কাজ করছে। মিয়ানমার সরকার যদি তাদের তাড়িয়ে দেয় তাহলে আমরা কেন গ্রহণ করব? নিরাপত্তার জন্য হুমকি জানার পর থেকে ভারত সরকার রোহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশ বন্ধে সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে।’

আহিরের মন্তব্যের পর বরুণ গান্ধী এক টুইট বার্তায় বলেন, 'ভারতের শরণার্থী নীতির ওপর প্রাথমিকভাবে আলোকপাত করা হয়েছে। ‘কীভাবে আমরা উদ্বাস্তুদের গ্রহণ করব’, সে ব্যাপারে স্পষ্ট উল্লেখ রয়েছে সেখানে। রোহিঙ্গাদের ক্ষেত্রে আমি সহানুভূতি দেখানোর কথা বলেছি। প্রতিটি আশ্রয়প্রার্থীকে জাতীয় নিরাপত্তার দিক থেকে বিচার করে আশ্রয় দেয়া হোক।’

প্রসঙ্গত, গতকাল সোমবার বিজেপির জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠকে প্রস্তাব পাশ করিয়ে রোহিঙ্গা ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারের অবস্থানকে পূর্ণ সমর্থন জানানো হয়েছে। প্রস্তাবে বলা হয়েছে, ভারত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য বাংলাদেশকে ত্রাণ পাঠিয়ে দায়িত্ব পালন করেছে। পাশাপাশি ১২৫ কোটি দেশবাসীর নিরাপত্তার জন্য অভ্যন্তরীণ সুরক্ষাও সুনিশ্চিত করেছে।

রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের ‘বেআইনি’ অনুপ্রবেশকারীর তকমা দিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টে জানিয়েছে, ওদের কেউ কেউ পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই ও তালেবানের-এর মতো সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীগুলির জড়িত থাকতে পারে। আর ওই গোষ্ঠীগুলি ভারতে থাকলে জাতীয় নিরাপত্তা ‘ভয়াবহ’ বিপদের মুখে পড়বে।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহও গত সপ্তাহে জানিয়ে দিয়েছেন, রোহিঙ্গারা উদ্বাস্তু নন, ভারতে ‘বেআইনি অনুপ্রবেশকারী’। ওদের ভারত থেকে বের করে দেয়া হবে।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী ভারতে প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশকারী রয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/২৬সেপ্টেম্বর/এসআই)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত