খুলনায় ব্যবসায়ী ও ব্যাংক কর্মকর্তাসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা

খুলনা ব্যুরো প্রধান, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ২৩:৩৭

খুলনা নগরীর দৌলতপুর সোনালী ব্যাংকের প্রায় ৯৩ কোটি টাকা আত্মসাৎ এর ঘটনায় মেসার্স ইস্টান ট্রেডার্স এর স্বত্ত্বাধিকারী পাট ব্যবসায়ী সনজিত কুমার দাসসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মঙ্গলবার রাতে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)’র খুলনা জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মোহা. মোশাররফ হোসেন বাদী হয়ে দৌলতপুর থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন।

মামলার অপর দুই আসামি হলেন সোনালী ব্যাংক লিমিটেড জিএম অফিস খুলনার অ্যাসিসটেন্ট ম্যানেজার মো. নজরুল ইসলাম ও সোনালী ব্যাংক লিমিটেড মহেশপুর শাখা ঝিনাইদহের গোডাউন কিপার মো. মতিয়ার রহমান।

ঘটনার সময়ে এ দুজনই সোনালী ব্যাংক লিমিটেড দৌলতপুর কর্পোরেট শাখায় কর্মরত ছিলেন। সনজিত কুমার দাস নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের মৃত শ্রীপতি কুমার দাসের ছেলে। মো. নজরুল ইসলাম ঝিনাইদহ জেলার কোটচাঁদপুর উপজেলার সলেমানপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে ও মো. মতিয়ার রহমান ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার ভলাইপুর গ্রামের মো. মাহাতাব উদ্দিনের ছেলে।  

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০০৮ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত সোনালী ব্যাংক লিমিটেড দৌলতপুর কর্পোরেট শাখা থেকে মেসার্স ইস্টার্ন ট্রেডার্স এর স্বত্ত্বাধিকারী পাট ব্যবসায়ী সনজিত কুমার দাস ৪৯কোটি ৬২লাখ ১৪২৩৭টাকা ঋণ গ্রহণ করেছিলেন।  কিন্তু সময়মত ঋণ পরিশোধ না করায় যার পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ৯২ কোটি ৬৩লাখ ৩১৭৫২টাকা।

ব্যাংকের তদন্তে পে¬জ ঋণ নেয়ার পর গুদামে ১৪ কোটি, ৫৫লাখ, ৯৯৬৮২টাকার পাট ঘাটতি ধরা পড়ে। এ ঘটনায় গতকাল দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)’র খুলনা জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মোহা. মোশাররফ হোসেন বাদী হয়ে ওই তিনজনের বিরুদ্ধে দৌলতপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন যার নং- ৩২। 
(ঢাকাটাইমস/২৬সেপ্টেম্বর/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত