ডিএমপিতে সেপ্টেম্বরে শ্রেষ্ঠ যারা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১০ অক্টোবর ২০১৭, ১৮:১৮

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় ভালো কাজের স্বীকৃতি হিসেবে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিজয়ীদের পুরস্কৃত করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায়  ঢাকা মহানগর পুলিশের সদরদপ্তরে পুরস্কার মাসিক তুলে দেন ডিএমপির পুলিশ কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া।

সেপ্টেম্বর মাসে ঢাকা মহানগর পুলিশের শ্রেষ্ঠ বিভাগ নির্বাচিত হয়েছে মিরপুর বিভাগ। শ্রেষ্ঠ সহকারী কমিশনার  হয়েছেন পল্লবী জোনের জেষ্ঠ্য সহকারী কমিশনার এবিএম জাকির হোসেন, শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক হয়েছেন কদমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এমএ জলিল, শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হয়েছেন একই থানার পরিদর্শক (তদন্ত)  মো. সাজু মিঞা, শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস্)  হয়েছেন  কদমতলী থানার পরিদর্শক (অপারেশনস) মো. সাইফুল ইসলাম, শ্রেষ্ঠ  উপপরিদর্শক যৌথভাবে মিরপুর মডেল থানার উপপরিদর্শক মো. ওহিদুল ইসলাম ও  কামরাঙ্গীরচর থানার মো. নতুন মিয়া, শ্রেষ্ঠ সহকারী উপপরিদর্শক এএসআই যৌথভাবে  হয়েছেন মিপুর মডেল থানার মো. আক্তারুজ্জামান ও কদমতলী থানার  ছইয়েদুল ইসলাম।

শ্রেষ্ঠ ওয়ারেন্ট তামিলকারী অফিসার মিরপুর মডেল থানার সহকারী উপপরিদর্শক মো. আক্তারুজ্জামান, শ্রেষ্ঠ অস্ত্র উদ্ধারকারী অফিসার  দারুসসালাম থানার উপপরিদর্শক মজিবুর রহমান, শ্রেষ্ঠ বিস্ফোরক উদ্ধারকারী অফিসার কোতওয়ালী থানার উপপরিদর্শক কৃষ্ণ পদ মজুমদার, শ্রেষ্ঠ মাদকদ্রব্য উদ্ধারকারী অফিসার কদমতলী থানার  পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস) মো. সাইফুল ইসলাম, শ্রেষ্ঠ চোরাই গাড়ি উদ্ধারকারী অফিসার দারুসসালাম থানার উপপরিদর্শক মইনউদ্দীন।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের শ্রেষ্ঠ বিভাগ হয়েছে ডিবি-সিরিয়াস ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ। শ্রেষ্ঠ সহকারী কমিশনার হয়েছেন মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পূর্ব বিভাগের অবৈধ মাদকদ্রব্য উদ্ধার ও প্রতিরোধ টিমের জেষ্ঠ্য সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম।

চোরাই গাড়ি উদ্ধারে শ্রেষ্ঠ টিম সহকারী পুলিশ হয়েছেন ডিবি দক্ষিণের গাড়ি চুরি উদ্ধার ও প্রতিরোধ টিমের সহকারী কমিশনার মো. রফিকুল আলম, বিস্ফোরকদ্রব্য উদ্ধারে শ্রেষ্ঠ রোবারী প্রিভেনশন টিমের সহকারী পুলিশ কমিশনার মিশু বিশ্বাস, মাদকদ্রব্য উদ্ধারে শ্রেষ্ঠ টিম ডেমরা জোনাল টিম (ডিবি-পূর্ব) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মাঈনুল ইসলাম। অজ্ঞান ও মলম পার্টি গ্রেপ্তারে শ্রেষ্ঠ টিম অর্গানাইজ ক্রাইম প্রিভেনশন টিমের সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. নজরুল ইসলাম।

ট্রাফিকের শ্রেষ্ঠ বিভাগ নির্বাচিত হয়েছে ট্রাফিক-উত্তর বিভাগ। শ্রেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার  হয়েছেন উত্তরা ট্রাফিক জোনের জেষ্ঠ্য সহকারী কমিশনার জিন্নাত আলী মোল্লা, শ্রেষ্ঠ ট্রাফিক ইন্সপেক্টর-  হয়েছেন রামপুরা ট্রাফিক জোনের পরিদর্শক মো. সারোয়ার জাহান, শ্রেষ্ঠ সার্জেন্ট লালবাগ ট্রাফিক জোনের মো. নাহিদুর রহমান।

বিশেষ পুরস্কারে পুরস্কৃতরা হলেন যারা- মাদক উদ্ধারে ডিএমপির ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম বিভাগ উপ-পুলিশ কমিশনার।  ডাকাত গ্রেপ্তারে যৌথভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন-  ডেমরা জোনের অতিরিক্ত উপ কমিশনার প্রশাসন শাহ ইফতেখার আহমেদ ও ডিবি-সিরিয়াস ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের রোবারি প্রিভেনশন টিমের সহকারী কমিশনার  মিশু বিশ্বাস, হোটেল ম্যানেজার হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটনে কোতওয়ালী জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মাহমুদা আফরোজ লাকী, হত্যা মামলার আসামি গ্রেপ্তারে যৌথভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন- মোহাম্মদপুর জোনের জেষ্ঠ্য সহকারী কমিশনার মো. হাফিজ আল-ফারুক ও মিরপুর মডেল থানার উপপরিদর্শক খন্দকার মঞ্জুর রাহী।

জাল স্ট্যাম্প ও কোর্ট ফি উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন-(ডিবি-পশ্চিম) তেজগাঁও জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার কাজী মইনউদ্দীন, রোহিঙ্গা নারী গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন ডিবি-উত্তরের  গাড়ি চুরি প্রতিরোধ টিমের জেষ্ঠ্য সহকারী কমিশনার নিশাত রহমান মিথুন, অপহৃত ভিকটিম উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন- ডিবি-সিরিয়াস ক্রাইমের সেনসেশনাল মার্ডার ইনভেস্টিগেশন টিমের জেষ্ঠ্য সহকারী কমিশনার  এ,জেড,এম, তৈমুর রহমান।

ফেসবুকে অশ্লীল ছবি পোস্টকারী গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- সাইবার সিকিউরিটি অ্রান্ড ক্রাইম বিভাগের মোবাইল ফিন্যান্স সিকিউরিটি টিমের জেষ্ঠ্য সহকারী কমিশনার  মো. আজহারুল ইসলাম মুকুল, অপহৃত নবজাতক ও শিশু উদ্ধারে যৌথভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন- ডেমরা জোনের জেষ্ঠ্য সহকারী কমিশনার ইফতেখায়রুল ইসলাম ও কোতওয়ালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জানে আলম মুনশী।

অপহৃত মহিলা উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন- ডিবি-দক্ষিণের অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার টিমের জেষ্ঠ্য সহকারী কমিশনার  শামসুল আরেফীন, জাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স প্রস্তুতকারী গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- ডিবি-সিরিয়াস ক্রাইম  সহকারী কমিশনার মো. নুরুল আমিন।

হ্যাকার গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- ডিবি-দক্ষিণ বিভাগের কোতয়ালী জোনাল টিমের সহকারী কমিশনার  মো.  ফজলুর রহমান, যুবদল ও জামায়াত নেতা গ্রেপ্তারে যৌথভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন- পল্টন মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  মো.  মাহমুদুল হক, কদমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এম এ জলিল। ছিনতাইকৃত টাকাসহ আসামি গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- উত্তরা পশ্চিম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক।

কচ্ছপ ও কুমির উদ্ধারসহ আসামি গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- উত্তরা-পশ্চিম থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন্স) মো. শাহ আলম, প্রতারক গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- অর্গানাইজড ক্রাইম প্রিভেনশন টিমের পরিদর্শক (নিরস্ত্র)  মো. আরিফুল হক। কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের মোবাইল ফিন্যান্স সিকিউরিটি টিমের পরিদর্শক (নিরস্ত্র) এস এম শাহজালাল।

ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষকারী গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের সোস্যাল মিডিয়া মনিটরিং টিমের পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মো. নাজমুল নিশাত। চাঁদাবাজ গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন-গুলশান থানার উপপরিদর্শক শেখ শাহানুর রহমান। বিদেশি নাগরিকের হারানো ল্যাপটপ উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন- বনানী থানার মহাখালী পুলিশ বক্সের উপপরিদর্শক রিপন কুমার। টাকাসহ দস্যু গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- কামরাঙ্গীচর থানার উপপরিদর্শক (নি.) মো. মকবুল হোসেন। গাড়িসহ অপহরণকারী গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- মোহাম্মদপুর থানার উপপরিদর্শক মো. ইয়াহিয়া। চুরি যাওয়া গরু উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন-ডেমরা থানার উপপরিদর্শক হুমায়ুন কবির।  অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- উত্তরখান থানার উপরিদর্শক পিএসআই মো. আলমগীর কবির। চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধারে পুরস্কৃত হয়েছেন- মহাখালী ট্রাফিক জোনের সার্জেন্ট নিতীশ সরকার, হারানো মোবাইল উদ্ধরে পুরস্কৃত হয়েছেন- ভাটারা থানার সহকারী উপপরিদর্শক মো. মাহাবুবুর রহমান, ছিনতাইকারী গ্রেপ্তারে পুরস্কৃত হয়েছেন- মহাখালী ট্রাফিক জোন  সহকারী সার্জেন্ট এটিএসআই মো. আবুল কাশেম।

ট্রাফিক সচেতনতামূলক বিশেষ পুরস্কারে পুরস্কৃতরা হলেন- ঢাকা মহানগর ট্রাফিক পুলিশের পূর্ব বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার নাজমুন নাহার ও মতিঝিল জোনের জেষ্ঠ্য সহকারী কমিশনার মো. সরোয়ার হোসেন।

বিট পুলিশিং এ বিশেষ পুরস্কারে পুরস্কৃতরা হলেন- ধানমন্ডি জোনের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার  মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম, ওয়ারী জোনের জেষ্ঠ্য সহকারী কমিশনার মো. সোহেল রানা, কামরাঙ্গীচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শাহীন ফকির, গেন্ডারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী মিজানুর রহমান ও যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনিছুর রহমান।

এছাড়াও বিশেষ ক্যাটাগরিতে পুরস্কৃতরা হলেন- অপারেশনস বিভাগ, উপ-পুলিশ কমিশনার (রমনা বিভাগ) উপ-পুলিশ কশিনার (লালবাগ বিভাগ), উপ-পুলিশ কমিশনার (ওয়ারী বিভাগ), উপ-পুলিশ কমিশনার (মতিঝিল বিভাগ), উপ-পুলিশ কমিশনার (তেজগাঁও বিভাগ), উপ-পুলিশ কমিশনার (মিরপুর বিভাগ), উপ-পুলিশ কমিশনার (গুলশান বিভাগ), উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তরা বিভাগ), কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগ, স্পেশাল এ্যাকশন গ্রুপ, ইএন্ডডি বিভাগ, সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগ, এবং সিস্টেম এনালিস্ট, ডিএমপি ঢাকা।

(ঢাকাটাইমস/১০অক্টোবর/এএ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রশাসন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত