‘মাদকের বিষাক্ত ছোবল থেকে জাতিকে রক্ষা করতে হবে’

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ১২ অক্টোবর ২০১৭, ২২:২৯

আল নুর কালচারাল সেন্টার বাংলাদেশের উদ্যোগে ‘মাদক ও ধূমপান প্রতিরোধে সমাজের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় ঢাকার মাতুয়াইলস্থ আল নুর এডুকেশন সেন্টারে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

হাজী ইউসুফ মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কাতারের নির্বাহী পরিচালক ও কাতার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ইমাম ও খতিব মাওলানা ইউসুফ নুর। বিশেষ অতিথি ছিলেন এনটিভির বার্তা সম্পাদক আব্দুস শহিদ এবং ইকরা বাংলাদেশের সহকারী প্রধান মাওলানা আরিফ উদ্দিন মারুফ।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মাওলানা ইউসুফ নুর বলেন, ‘মাদক ও ধুমপান মানুষের কোনো উপকারে আসে না বরং শারীরিক, আর্থিক সব দিক থেকেই তা ক্ষতিকর। দিনদিন মাদক ও ধুমপানকারীর স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটে; সামাজিক এবং নৈতিক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে এক সময় অকাল মৃত্যু ঘটে।’

মাওলানা ইউসুফ নুর বলেন, ‘ইসলাম সুস্থ বিবেক ও মানসিক উৎকর্ষ নিশ্চিত করতে বদ্ধপরিকর। জ্ঞান-বুদ্ধি লোপ করে মস্তিষ্কের বিকৃতি ঘটায়, অর্থের অপচয় হয়, স্বাভাবিক জীবন যাপনের অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায় এমন কোনো দ্রব্য গ্রহণ ইসলামের আদর্শবিরোধী। মাদকের বিষাক্ত ছোবল থেকে জাতিকে রক্ষা করতে হবে। আর এজন্য প্রয়োজন সামাজিক ও ধর্মীয় সচেতনতা। আল নুর সেন্টার সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।’

সাবেক ডিইউজের সভাপতি ও এনটিভির বার্তা সম্পাদক আব্দুস শহিদ বলেন, ‘আজকের সমাজে মাদক মহামারিতে রূপ নিয়েছে। দেশে মাদকের বিরুদ্ধে অনেক আইন থাকলেও তা সেভাবে কার্যকর করা হচ্ছে না। ফলে মাদক গ্রহণকারীর দিনদিন সংখ্যা বেড়েই চলেছে। মাদকের কুফল থেকে জাতিকে রক্ষা করতে সাংবাদিক, আলেম-উলামা, বুদ্ধিজীবী সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।’ 

মাওলানা আরিফ উদ্দীন মারুফ বলেন, ‘মাদকসেবীদের কাছে সামাজিকতা, ধর্মীয় কৃষ্টি-কালচার সবকিছু মূল্যহীন। চরম বিপর্যস্ত ভবিষ্যৎ নিয়ে তারা এগিয়ে চলেছে নোংরা ও ধ্বংসের পথপানে। মাদক শুধু একজন ব্যক্তিকেই শেষ করে দিচ্ছে না। একজন মাদকসেবীর কারণে নিঃশেষ হয়ে যায় একটি পরিবার, একটি সমাজ। ইসলামে মাদকদ্রব্য গ্রহণ সম্পূর্ণ হারাম। মাদক ও ধুমপান প্রতিরোধে ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলার বিকল্প নেই।’ 

আল নুর কালচারাল সেন্টার বাংলাদেশ শাখার প্রচার সম্পাদক মাওলানা আনছারুল হক ইমরানের পরিচালনায় সভায় আরও বক্তব্য দেন আওয়ার ইসলামের নির্বাহী সম্পাদক মাওলানা রোকন রাইয়ান, সাংবাদিক এহসান সিরাজ, মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম, মাওলানা জুনাইদ মাহমুদী, মাওলানা ইসহাক আল নুর, হানিফ আল হাদী প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/১২অক্টোবর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত