স্নাতক মুসলিম ছাত্রীদের ৫১ হাজার রুপি দেবেন মোদি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৩ অক্টোবর ২০১৭, ১৬:০০ | প্রকাশিত : ১৩ অক্টোবর ২০১৭, ১৫:৫৭

বিয়ের আগেই যারা স্নাতক হবেন এমন মেধাবি মুসলিম ছাত্রীদের জন্য এক বিশেষ প্রকল্প চালু করতে যাচ্ছে মোদি সরকার। প্রকল্পটির নাম দেয়া হয়েছে ‘শাদি শাগুন’। অর্থাৎ বিয়ের সময় সেই সব মেধাবি ছাত্রীদের হাতে ৫১ হাজার টাকা উপহার তুলে দেবে সরকার।

এই প্রকল্পের মূল লক্ষ হলো, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে উচ্চশিক্ষায় অনুপ্রেরণা দেয়া। যেসব ছাত্রীরা বেগম হজরত মহল বৃত্তি পেয়েছেন, তারা এই সুবিধা পাবেন বলে জানা গিয়েছে।

সংখ্যালঘুদের মধ্যে আর্থিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া মেধাবিদের জন্য এমন একটা প্রকল্পের সূচনা করা হয়েছিল ২০০৩-এ অটল বিহারী বাজপেয়ীর আমলে। কিন্তু সে সময় দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত বৃত্তি দেয়া হতো।

মৌলানা আজাদ এডুকেশন ফাউন্ডেশন-এর কোষাধ্যক্ষ শাকির হুলেন আনসারি জানান, মেয়েদের উচ্চশিক্ষা দেবে নাকি তার আগেই বিয়ে দিয়ে দেবে, এই ভাবনার দোলাচলে থাকে মুসলিম এবং অন্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায় পরিবারগুলো। ফলে অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় উচ্চশিক্ষা অর্থ খরচ না করে সেই অর্থ বিয়ের জন্য জমাতে থাকেন তারা। কিন্তু সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মেধাবি ছাত্রীরা যাতে আরও বেশি দূর পড়াশোনা করতে পারেন, তার জন্য ‘শাদি শাগুন’ নামে এই প্রকল্প আনা হচ্ছে। পাশাপাশি এই প্রকল্পের মাধ্যমে সেই সব পরিবারগুলোকে উচ্চশিক্ষায় দেয়ার জন্য উৎসাহিত করা হবে তাদের মেয়েদের।

সংখ্যালঘু বিষয়ক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নকভির কাছে এ বিষয়ে একটি প্রস্তাব পাঠায় মৌলানা আজাদ ফাউন্ডেশন। সেই প্রস্তাবে অনুমোদন দেয় সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

এই প্রকল্পের আওতায় থাকবে মুসলিম, খ্রিস্টান, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি সম্প্রদায়ের মেধাবি ছাত্রীরা। তবে যেসব ছাত্রীর বাবা-মায়ের আয় বছরে দুই লাখ রুপি তারা এই সুবিধা পাবেন।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

(ঢাকাটাইমস/১৩অক্টোবর/এসআই)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত