‘জঙ্গি সংগঠন’ হিকমার প্রতিষ্ঠাতার কারাদণ্ড

ব্যুরো প্রধান, রাজশাহী
 | প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৭, ২২:৩০

নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন ‘শাহাদাত-ই আল-হিকমা’র প্রতিষ্ঠাতা কাওসার হুসাইন সিদ্দিকীকে দুই বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। রাষ্ট্র ও সরকারবিরোধী কার্যকলাপ পরিচালনার দায়ে রাজশাহীর অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর আদালতের হাকিম জুলফিকার উল্লাহ তাকে এই দণ্ড দেন। মঙ্গলবার বিকালে এ রায় ঘোষণা করা হয়।

কাওসার হুসাইন রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার হড়গ্রাম গোরস্থানপাড়া মহল্লার শমসের আলীর ছেলে।

আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী নাজমুল ইসলাম রাতে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, আসামি কাওসারকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে। এ অর্থ পরিশোধ না করলে আরও তিনমাস কারাভোগ করতে হবে তাকে। কাওসার আগে থেকেই কারাগারে ছিলেন।

মামলার রায় ঘোষণা উপলক্ষে মঙ্গলবার তাকে আদালতে নেয়া হয়েছিল। আদালত তার উপস্থিতিতেই রায় ঘোষণা করে। পরে তাকে আবার কারাগারে নেয়া হয়।

আইনজীবী নাজমুল ইসলাম জানান, ২০০২ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি নগরীতে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ‘শাহাদাত-ই আল হিকমা’ নামে একটি সংগঠনের ঘোষণা দেন কাওসার। ওই সংবাদ সম্মেলনে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধকে ‘সন্ত্রাসী কার্যকলাপ’ উল্লেখ করে রাষ্ট্র ও সরকারের বিরুদ্ধে আপত্তিকর বক্তব্য দেয়া হয়।

পরে এসব বিষয়ের প্রচার চালাতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়সহ নগরীজুড়ে পোস্টার লাগানো হয়। এ নিয়ে ওই সময় নগরীর বোয়ালিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে পুলিশ। পরবর্তীতে শাহাদাত-ই আল-হিকমাকে জঙ্গি সংগঠন আখ্যায়িত করে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে সরকার।

এরপর ২০০৩ সালের ১৯ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কাওসারের বিরুদ্ধে মামলার অনুমোদন দেয়। পরদিন থানায় মামলাটি রেকর্ড হয়। দীর্ঘ বিচারপ্রক্রিয়া শেষে অবশেষে এই মামলার রায় ঘোষণা করা হলো।

(ঢাকাটাইমস/১৭অক্টোবর/আরআর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত