চলনবিলে জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে

সাইফুল ইসলাম, নাটোর
| আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০১৭, ২২:০৭ | প্রকাশিত : ১৯ অক্টোবর ২০১৭, ১৭:৫৫

নাটোরের সিংড়ার চলনবিলের ডাহিয়া-সাতপুকুরিয়া ও বিল তাজপুর এলাকায় বানার বাঁধ, সুঁতিজাল দিয়ে নির্বিচারে মাছসহ বিভিন্ন প্রজাতির জলজপ্রাণি শিকার করা হচ্ছে। মসজিদের নামে বিলের বিভিন্ন এলাকায় ইজারা দিয়ে এসব জলজপ্রাণি শিকারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

পরিবেবিদেরা বলছেন, এর ফলে মাছের স্বাভাবিক প্রজনন ব্যাহত হচ্ছে। পাশাপাশি চলনবিলের জীববৈচিত্র্য নষ্ট হচ্ছে। অন্যদিকে বিলের পানি দ্রুত নামতে না পারায় ইরি ধানের বীজতলা বোপনে দুঃচিন্তায় রয়েছেন চলনবিলের লক্ষাধিক কৃষক।

সরোজমিনে চলনবিলে দেখা গেছে, চলনবিলের সাতপুকুরিয়া-ডাহিয়া, বিল তাজপুর ও হিজলী এলাকায় বানার বাঁধ ও সুঁতিজাল দিয়ে ছোট-বড় সব ধরনের মাছ, কাঁকড়া, শামুকসহ বিভিন্ন জলজপ্রাণি নিধন করা হচ্ছে। পাশাপাশি দুটি বাঁধে দুই কিলোমিটারের বেশি অংশ বাঁধ দিয়ে ঘেরা।

সুঁতিজাল পাতার কাজে ব্যস্ত ডাহিয়া গ্রামের আব্দুল হাকিম ও তার ছেলে ওয়াজেদ আলী বলেন, ডাহিয়া মধ্যপাড়া জামে মসজিদে পাঁচ হাজার টাকা দিয়ে তারা এই সুঁতি ও বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার করছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসীরা জানান, ডাহিয়া মসজিদ কমিটি থেকে নামমাত্র টাকায় বিল ইজারা নিয়ে স্থানীয় প্রভাবশালী ডাহিয়া গ্রামের আব্দুল হাকিম, ওয়াজেদ আলী ও শাহিনের নেতৃত্বে ডাহিয়া বিলে দুটি সুঁতি ও বানার বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার করা হচ্ছে।

২নং ডাহিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এমএম আবুল কালাম বলেন, চলনবিলের ডাহিয়া বিল অনেক আগে থেকেই প্রথাগতভাবে স্থানীয় ৩টি মসজিদের নামে ৩টি জায়গা প্রকাশ্যে ডেকে দেয়া হয়। তবে এটার কোন আইনগত বৈধতা নেই। আর এর সঙ্গে তিনি বা তার ইউনিয়ন পরিষদের কেউ জড়িত নন।

চলনবিল জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক আখতারুজ্জামান বলেন, চলনবিলে বানার বাঁধ ও সুতিজাল দেয়ায় সবধরনের মাছ ও জলজপ্রাণি অবাধে চলাচল করতে পারছে না। এতে মাছ, কাঁকড়া, শামুকসহ ছোট পোকামাকড় বিলুপ্ত হচ্ছে। আমরা এলাকাবাসীকে সচেতন করার চেষ্টা করছি।

সিংড়া উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা ওমর আলী বলেন, চলনবিলের মৎস্যসম্পদ রক্ষায় গত এক মাসে আত্রাই ও গুড়নদী এবং চলনবিলের বিভিন্ন এলাকায় ২৬টি মোবাইল কোর্ট ও অভিযান পরিচালনা করে ২০টি সুঁতিজাল ও বাঁশের বেড়া অপসারণ করা হয়েছে। আর ডাহিয়া-সাতপুকুরিয়া বিলের সুতি ও বাঁধ এর বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(ঢাকাটাইমস/১৯অক্টোবর/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত