অমীমাংসিত সমস্যা সমাধান

প্রতিবেশীদের মধ্যে অগ্রাধিকার পাবে বাংলাদেশ: সুষমা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০১৭, ১৪:২৭ | প্রকাশিত : ২৩ অক্টোবর ২০১৭, ১৩:৩৬
ফাইল ছবি

বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে তিস্তা পানিবণ্টন চুক্তিসহ সব সমস্যার সমাধান হবে বলে জানিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। তিনি বলেছেন, ‘বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে সব অমীমাংসিত সমস্যা সমাধান করা হবে। কারণ ভারত তার পররাষ্ট্রনীতি অনুযায়ী, সব প্রতিবেশীর সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখতে অঙ্গীকারবদ্ধ। আর সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার থাকবে।’

সোমবার দুপুরে ঢাকার বারিধারায় ভারতীয় হাইকমিশনের চ্যান্সারি কমপ্লেক্স উদ্বোধনসহ ১৫টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন শেষে এসব মন্তব্য করেন তিনি।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ এম মাহমুদ আলীর সঙ্গে সম্পর্ক প্রসঙ্গে সুষমা বলেন, ‘আমরা দুজন দাদা-দিদি সম্পর্ক পাতিয়ে ফেলেছি।’

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘তিনি (মাহমুদ আলী) আমাকে দিদি বলেন, আমি তাকে দাদা বলি। সম্পর্কটা এখন পারিবারিক হয়েছে। সম্পর্ক যখন পারিবারিক ও সাংস্কৃতিক হয় তখন সেটা ভিন্ন মাত্রা পায়’।

ভবন উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে সুষমা বলেন, আমাদের তরুণদের ওপর বেশি করে বিনিয়োগ করতে হবে। এতে আমাদের ভবিষ্যৎ নিরাপদ থাকবে।

উদ্বোধন হওয়া প্রকল্পগুলো সম্পর্কে সুষমা বলেন, ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে সুপারসনিক গতিতে প্রকল্পগুলোর কাজ এক বছরের মধ্যে শেষ হবে।

চ্যান্সেরি ভবনসহ ভারতীয় অর্থায়নের ৭১ কোটি ৬৪ লাখ টাকার উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে- পিরোজপুরে ১১টি পানি পরিশোধনাগার স্থাপন, দেশের বিভিন্ন স্থানে ৩৬টি কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন, সাভারে পাঁচ তলা ইস্কন মন্দির নির্মাণ, সিলেট ইস্কনে পাঁচ তলা ছাত্রাবাস নির্মাণ, চট্টগ্রামে একটি কমিউনিটি ভবন নির্মাণসহ অন্যান্য প্রকল্প।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী, বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, বন ও পরিবেশ মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, ভারতের পররাষ্ট্র সচিব এস জয়শঙ্কর, বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব এম শহিদুল হক প্রমুখ।

ঢাকাটাইমস/২৩অক্টোবর/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত