অভিভাবকদের শিক্ষিত করতে চান জেসিয়া

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০১৭, ১২:১২ | প্রকাশিত : ২৪ অক্টোবর ২০১৭, ১২:০৩

ফরাসি সম্রাট নেপোলিয়ান বলেছিলেন, ‘তোমরা আমাকে একটা শিক্ষিত মা দাও, আমি তোমাদের একটি শিক্ষিত জাতি উপহার দেবো।’ নেপোলিয়ানের এই কথাটি বোধহয় বেশ মনে ধরেছে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ খেতাব জয়ী জেসিয়া ইসলামের। তাইতো সন্তানদের পাশাপাশি অভিভাবকদেরও শিক্ষিত করতে চান তিনি। এই মুহূর্তে ৬৭ তম মিস ওয়ার্ল্ডের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে চীনে রয়েছেন তিনি।

মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে অন্য প্রতিযোগীদের সঙ্গে রয়েছে জেসিয়ার ছবি। রয়েছে তাঁর কিছু তথ্যও।  এসব তথ্যেরই একটিতে জানতে চাওয়া হয়েছে প্রতিযোগীর জীবনের লক্ষ্য বা উদ্দেশ্য কি। সেখানেই লেখা রয়েছে, সন্তানদের পাশাপাশি অভিভাবকদেরও শিক্ষিত হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করবেন তিনি।  

ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলোর মধ্যে আরও রয়েছে জেসিয়ার পেশা, বয়স, উচ্চতা, দক্ষতা পছন্দ-অপছন্দসহ নানা বিষয়ের বিবরণ।

তথ্য মতে, জেসিয়া একজন শিক্ষার্থী।  তার বয়স ১৮,  উচ্চতা ১৭২ সেন্টিমিটার।  বাংলা, হিন্দি ও ইংরেজি ভাষায় দক্ষ তিনি।  লক্ষ্য, ফ্যাশন ডিজাইনার হওয়া। পছন্দ, ক্রিকেট ও বাস্কেট বল।  আগ্রহ আছে নাচ আর র‌্যাম্প মডেলিংয়ে। শখ, ঘুরে বেড়ানো, ছবি দেখা ও গান শোনা।  দ্য স্ক্রিপ্ট ব্যান্ডের ‘হল অব ফেম’এবং জর্জ মাইকেলের ‘কেয়ারলেস হুইসপার’তাঁর পছন্দের গান।

এর আগে বাল্যবিয়ে বন্ধের ঘোষণা দিয়েছিলেন বিয়ের খবর গোপন করে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল। গোপন বিয়ে খবর জানাজানি হলে মুকুট হারিয়ে ফেসবুক লাইভে এসে এমন ঘোষণা দেন তিনি। বাল্যবিয়ে বন্ধে ‘এভ্রিল ফাউন্ডেশন’ নামে একটি ফান্ডও গঠন করেন আমেনা ওরফে এভ্রিল।

ঢাকাটাইমস/২৪অক্টোবর/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত