এম কে আনোয়ারের সততা ছিল ঈর্ষণীয় উচ্চতায়: খালেদা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ অক্টোবর ২০১৭, ১৩:৫৭
ফাইল ছবি

এম কে আনোয়ারের মৃত্যুতে দেশ ও বিএনপির জন্য অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তিনি বলেছেন, ‘তার (আনোয়ার) সততা ও নিষ্ঠা ছিল ঈর্ষণীয় উচ্চতায়। সে কারণেই পেশাগত জীবনে সরকারি সর্বোচ্চ পদে অধিষ্ঠিত থেকেও তিনি অমলিন ব্যক্তিত্ব-মর্যাদা অক্ষুন্ন রাখতে সক্ষম হয়েছিলেন।’

এম কে আনোয়ারের মৃত্যুতে মঙ্গলবার গণমাধ্যমে দেয়া এক শোক বার্তায় বিএনপি চেয়ারপারসন এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, ‘সজ্জন, মিতভাষী, নিয়মনিষ্ঠ, কথা ও কাজে অসাধারণ সামঞ্জস্য ছিল এম কে আনোয়ারের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। এছাড়া রাজনৈতিক জীবনেও নিজ আদর্শে অটল থেকে সংগ্রাম ও জনগণের সেবা করে গেছেন।’

শোকবার্তায় বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, ‘দেশের বরেণ্য এই রাজনীতিবিদের মৃত্যুতে তার পরিবারবর্গের মতো আমিও গভীরভাবে শোকাহত ও ব্যথিত হয়েছি। আমি তার আত্মার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাই।’

খালেদা জিয়া বলেন, ‘রাজরোষে পড়া সত্ত্বেও তিনি কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে দ্বিধা করেননি। তাই বারবার কারাবরণসহ নিপীড়ন-নির্যাতন সহ্য করেও নিষ্ঠা ও সাহসিকতার সঙ্গে অগণতান্ত্রিক সরকারের অসদাচরণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে গেছেন।’

সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে এম কে আনোয়ার সব সময় সামনের কাতারে থেকেছেন। নিজ এলাকায় শিক্ষার প্রসার ও জনকল্যাণমূলক কাজেও তার অবদান স্মরণীয়। জনগণের কাছে দেয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষার কারণেই আদর্শনিষ্ঠ এম কে আনোয়ার বারবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।’

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, ‘সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদী দর্শনকে বুকে ধারণ করে তিনি (আনোয়ার) স্বদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার অঙ্গীকারে বিএনপিকে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন।’

খালেদা জিয়া বলেন, ‘তার মৃত্যু জাতীয়তাবাদী শক্তির জন্য মর্মস্পর্শী। এম কে আনোয়ারের মৃত্যু দেশবাসী ও দলের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি। আমি তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারবর্গ, গুণগ্রাহী, সহকর্মী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, সোমবার দিবাগত রাত সোয়া একটার পর রাজধানীর নিউ এলিফ্যান্ট রোডের নিজ বাসায় মারা যান প্রবীণ এই রাজনীতিক।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় কাঁটাবন মসজিদে এম কে আনোয়ারের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। বেলা ১২টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দ্বিতীয় জানাজা এবং দেড়টায় জাতীয় সংসদ ভবনের সামনে তৃতীয় দফা জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এখন তার মরদেহ গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার হোমনায় নেয়া হবে। সেখানে চতুর্থ দফা জানাজা শেষে বুধবার পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে পাঁচবার নির্বাচিত এই সংসদ সদস্যকে।

ঢাকাটাইমস/২৪অক্টোবর/বিইউ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত