নারায়ণগঞ্জে ধর্ষণ মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৫ নভেম্বর ২০১৭, ১৯:০৭

নারায়ণগঞ্জে মামুন মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে ধর্ষণ মামলায় যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে নারায়ণগঞ্জের একটি আদালত। একই সঙ্গে আসামিকে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে।

রবিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আমজাদ হোসেন এ রায় ঘোষণা করেছেন। রায় ঘোষণা সময় আসামি পলাতক ছিলেন। মামুন মিয়া (২৪) নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার ক্ষিরদাসাদী গ্রামের আমান উল্লাহর ছেলে।

রায়ে বলা হয়, একই সঙ্গে ধর্ষণে ভূমিষ্ট হওয়া শিশু সন্তানকে মামুন মিয়ার জন্মদাতা পিতা হিসেবে পরিচয় দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

নারায়ণগঞ্জ আদালতের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট রাকিব উদ্দিন আহমেদ রকিব রায় ঘোষণার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আদালত রায়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২০০০ (সংশোধনী-০৩) এর ৯(১) ধারায় ধর্ষক মামুন মিয়াকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে। একই সঙ্গে মামুন মিয়াকে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড করেছে।

এছাড়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২০০০ এর ১৩ ধারায় মামুন মিয়াকে ধর্ষিতার গর্ভজাত সন্তানের জন্মদাতা পিতা হিসেবে সাব্যস্ত করেছে আদালত।

আদালত রায়ে আরও উল্লেখ করেছে, শিশুটি তার মায়ের তত্ত্বাবধানে থাকবে এবং পিতা মামুন মিয়া ও মায়ের পরিচয়ে পরিচিত হবে। ওই কন্যা শিশুর বিয়ে দেয়ার আগ পর্যন্ত সরকার ভরনপোষণ বহন করবে এবং ভরনপোষণ বাবদ ব্যয়িত অর্থ সরকার মামুন মিয়ার বিদ্যমান সম্পদ থেকে আদায় করবে।

স্পেশাল পাবলিক প্রশিকিউটর জানান, প্রেমের সম্পর্ক করে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মামুন মিয়া তার এলাকার পাশের বাড়ির এক নারীকে ২০১৩ সালের ৫ জানুয়ারি থেকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। এতে অন্তঃসত্ত্বা হলে ওই যুবতি বিয়ের জন্য মামুন মিয়াকে তাগিদ দেন। এতে মামুন গর্ভের সন্তানকে অস্বীকার করেন। এ ঘটনার দুই মাস পর ১৮ মার্চ নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যাল আদালতে মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলায় আদালত ছয়জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে রায় ঘোষণা করে।

(ঢাকাটাইমস/০৫নভেম্বর/প্রতিনিধি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত