ভোলায় বিকাশ কর্মীর কাছ থেকে ১৭ লাখ টাকা ছিনতাই

ভোলা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৬ নভেম্বর ২০১৭, ১৮:২৮

ভোলার চরফ্যাসন উপজেলায় বিকাশ এজেন্টের কর্মীর কাছ থেকে ১৭ লাখ ৫ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মামলা হলেও পুলিশ এখনোও টাকা উদ্ধার করতে পারেনি। তবে সোমবার দুপুরে সন্দেহভাজন হিসেবে ছিনতাই হওয়া বিকাশকর্মীকে আটক করে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছে এবং ব্যাংকের সিসি ফুটেজ দেখে অনুসন্ধান করছে পুলিশ।

লালমোহন সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান ঘটনার তদন্তে চরফ্যাসনে সরেজমিন গিয়েছেন।

স্থানীয় ও সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ভোলার চরফ্যাসন বিকাশ শাখার হিসাব রক্ষক সোলায়মান সাগর এক কোটি ১৪ লাখ টাকা রবিবার দুপুরে চরফ্যাসন পূবালী ব্যাংক থেকে উত্তোলন করে।  ওই টাকা থেকে বিকাশের ডিএসও নিজাম উদ্দিনকে ১৭ লাখ ৫ হাজার টাকা  চরফ্যাসনের আঞ্জুর হাটের বাবুর হাট মার্কেটে এজেন্টদের কাছে পৌঁছানোর জন্য দেয়া হয়। তিনি মোটরসাইকেল যোগে একা তার গন্তব্যের উদ্দ্যেশে যাওয়ার সময় বিকাল ৩টার দিকে হঠাৎ করে কাশেমগঞ্জ বাজারের কাছে পাটোয়ারি বাড়ির সামনে একটি মোটরসাইকেলে ৩ আরোহী বিকাশ প্রতিনিধির মোটরসাইকেলের গতি রোধ করে। এর মধ্যে একজন হেলমেট পরা ছিল। 

বিকাশকর্মী জানান, এ সময় মোটরসাইকেলের অজ্ঞাত তিন ব্যক্তি তার গলায় চাকু ঠেকিয়ে  ব্যাগ ভর্তি ১৭ লাখ ৫ হাজার টাকা নেয়ার চেষ্টা করলে সে প্রথমে বাধা দেয়। এসময় ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে টাকা ব্যাগ ছিনিয়ে ও মোটরসাইকেলের চাবি ছিনিয়ে পালিয়ে চলে যায়। এসময় বিকাশকর্মী নিজাম উদ্দিন ডাক চিৎকার করছিল। ওই সময় এওয়াজপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার শাহাবুদ্দিন যাওয়ার সময় ছিনতাইকারীকে ধাওয়া করে।

এ ঘটনায় চরফ্যাসন বিকাশ অফিসের হিসাব রক্ষক সোলায়মান সাগর বাদী হয়ে গত রবিবার রাতে চরফ্যাসনের শশীভূষন থানায় অজ্ঞাত আসামি হিসাবে ছিনতাই মামলা করেন।

শশীভূষণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হানিফ সিকদার জানান, এ ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে তারা বিকাশ কর্মী নিজামকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন। নিজামের বক্তব্যের সাথে ঘটনার মিল নেই।

(ঢাকাটাইমস/৬নভেম্বর/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত