র‌্যাবের অভিযানে ভুয়া ক্যাপ্টেন আটক

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ নভেম্বর ২০১৭, ২১:০৪

নারায়ণগঞ্জের আদমজীতে অবস্থিত র‌্যাব-১১ এর একটি টিম সেনাবাহিনীর পলাতক ও চাকরিচ্যুত একজন সদস্য জাহিদ হাসানকে (২৪) আটক করেছে। ওই সময় তার কাছ থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডো প্রতীক সম্বলিত করপোরাল র‌্যাঙ্ক-ব্যাজ যুক্ত এক সেট ইউনিফর্ম, এক জোড়া বুট, সেনাবাহিনীর কাপড়ের তৈরি ব্যাগ, প্যারা কমান্ডো ব্যাটালিয়নের একটি ভুয়া সনদপত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

রবিবার দুপুরে র‌্যাব-১১ এর সিনিয়র এএসপি মো. জসিম উদ্দীন চৌধুরীর নেতৃত্বে¡ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকার তেজগাঁওয়ের ১৮/এ কুনিপাড়া বাবলী মসজিদ সংলগ্ন শওকত হোসেনের পাঁচ তলা ভবন থেকে তাকে আটক করা হয়।

জাহিদ হাসান রাজবাড়ি জেলার পাংশা থানার বাহাদুরপুর এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে।

সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, জাহিদ হাসান (২৪) ফেসবুকে সেনাবাহিনীতে কর্মরত ক্যাপ্টেন ও করপোরাল পরিচয় দিয়ে দুটি আইডি খুলে প্রতারণা চালিয়ে যাচ্ছেন এমন অভিযোগের ভিত্তিতে দীর্ঘদিন ধরে তার কর্মকাণ্ড নজরদারি করে সত্যতা পেয়ে তাকে আটকে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তিনি তার বিয়ের তথ্য গোপন রেখে সেনাবাহিনীতে ২০১৩ সালে যোগদান করেন। বেসিক ট্রেনিং শেষ করে সাভার সেনানিবাসে কর্মরত থাকাকালে প্রথম স্ত্রীর তথ্য গোপন রেখে ২০১৬ সালে জানুয়ারিতে সহকর্মীর সাথে সাতক্ষীরার কলারোয়ায় বেড়াতে গিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। পরবর্তী সময়ে ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রথম ও দ্বিতীয় স্ত্রীর তথ্য গোপন রেখে সাভার এলাকায় তৃতীয় বিয়ে করেন। তার ৩য় স্ত্রীর একটি আট মাসের সন্তান রয়েছে। চাকরিতে যোগদানের আগে বিয়ে তথ্য গোপন রাখা এবং কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া একাধিক বিয়ের কারণে ভীত হয়ে কর্মস্থল হতে পালিয়ে গিয়ে দীর্ঘদিন আত্মগোপনে থাকেন তিনি।

সেনাবাহিনী থেকে চাকরিচ্যুত হওয়ার পর তিনি প্রতারণার উদ্দেশ্যে ফেসবুকে সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন পরিচয় দিয়ে সেনাবাহিনীর র‌্যাঙ্ক ব্যাজ সম্বলিত ইউনিফর্ম পরে বিভিন্ন পোস্ট দেন। তিনি বিভিন্ন বয়সের মেয়েদের সাথে সেনাবাহিনীর ভুয়া ক্যাপ্টেন, কখনো সার্জেন্ট, কখনো করপোরাল কিংবা মেডিকেল অফিসার, প্রাক্তন র‌্যাব সদস্য ও সিআইডি সদস্য হিসেবে পরিচয় দিয়ে প্রতারণার উদ্দেশ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন।

র‌্যাব আরও জানায়, জাহিদ সেনাবাহিনীর কর্মকর্তার স্বাক্ষরিত ভুয়া প্যারাকমান্ডো সনদপত্র তৈরি করে এবং সেনাবাহিনী থেকে অবসরে এসেছেন মর্মে তথ্য দিয়ে তেজগাঁও এলাকায় এসিআই কোম্পানির সুপারভাইজার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সেখানে ফেসবুকের মাধ্যমে বিভিন্ন বয়সের মেয়েদের সঙ্গে প্রতারনার উদ্দেশ্যে প্রেমের সম্পর্ক চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

তার বিরুদ্ধে ডিএমপির তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানায় র‌্যাব।

(ঢাকাটাইমস/১২নভেম্বর/প্রতিনিধি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অপরাধ ও দুর্নীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত