রাস্তায় ছেলের ফেলে দেয়া সেই বৃদ্ধকে তুলে নিলেন নাতি

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ নভেম্বর ২০১৭, ১৯:০০

৭০ বছরের বৃদ্ধের ঢাকায় লালবাগে চারটি আলিশান বাড়ি রয়েছে। বৃদ্ধ বাবাকে লালন-পালন করতে এতটাই অনীহা যে, সেই বাবাকে নারায়ণগঞ্জে চাষাড়া শহীদ মিনারের সামনে এনে ফেলে দিয়ে গেলেন একমাত্র ছেলে। এ খবর ঢাকাটাইমসসহ বিভিন্ন অনলাইন নিউজপোর্টালে প্রকাশিত হলে রাতেই মেয়ের ঘরের নাতি এসে হাসপাতালে থেকে নিয়ে গেছেন ঢাকায়। হাসপাতাল থেকে অনেকটা জোর করেই নিয়ে গেছেন বলে দাবি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের।

শুক্রবার চাষাড়া পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মোমেন ঢাকাটাইমসকে বলেন, আমি শুক্রবার সকালে হাসপাতালে গিয়েছিলাম। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আমাকে জানায়, ওই বৃদ্ধের নাতি এসে তাকে নিয়ে গেছে। কোন নাম-ঠিকানা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নোট করেনি। বৃদ্ধের স্বজনরা অনেকটা রাগারাগি করে নাকি নিয়ে গেছে। শুধু জানিয়েছে, বৃদ্ধের বাসা ঢাকার লালবাগে। তিনি সচ্ছল পরিবারের।

এদিকে বৃদ্ধের চিকিৎসার তত্ত্বাবধানে থাকা চিকিৎসক তাহমিনা নাজনীন ঢাকাটাইমসকে শুক্রবার দুপুরে বলেন, রাতে বৃদ্ধের মেয়ের ঘরের নাতি এসে নিয়ে গেছেন। তার নামটা মনে করতে পারছি না। তিনি জানিয়েছেন- বৃদ্ধের বাসা ঢাকার লালবাগে। বৃদ্ধের একমাত্র সন্তান রয়েছে। তিনি নারায়ণগঞ্জে বৃদ্ধকে রেখে যান। নাম ঠিকানা সবকিছু খাতায় লেখা রয়েছে। এ মুহূর্তে মনে করতে পারছি না।

শুক্রবার হাসপাতালে জরুরি বিভাগ ও ওয়ার্ডে গিয়ে বৃদ্ধের নাম-ঠিকানা পাওয়া যায়নি। হাসপাতালে কর্মরত লোকজন জানান, ‘রাতে এসে ওই বৃদ্ধের নাতি জানিয়েছে- বৃদ্ধের ঢাকার লালবাগে চারটি আলিশান বাড়ি রয়েছে। তার একমাত্র ছেলে সন্তান রয়েছে। তিনি নারায়ণগঞ্জে বৃদ্ধকে ফেলে দিয়ে যান। মূলত অসুস্থ থাকার কারণেই তাকে নারায়ণগঞ্জে ফেলে দিয়ে যান তার একমাত্র ছেলে।’

এদিকে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রাণকেন্দ্র চাষাড়া শহীদ মিনারের সামনে পতিত অবস্থায় দেখা যায় ৭০ বছরের এই বৃদ্ধকে। কথা বলতে পারেন না। কিছু খেতেও পারেন না। হাঁটতে-বসতে ওঠতে পারেন না। গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে ভেজা কাকের মত ভোর থেকে শহীদ মিনারের পাশে মার্কেট বেইলি টাওয়ারের সামনে বৃদ্ধকে পরে থাকতে দেখে কজন লোক প্রথমে শহীদ মিনারের ভেতরে এনে একটি গাছের নিচে শুয়ে দেন।

সেখানে পরে থাকা অবস্থায় অনেকেই খেতে দেন। সারাদিন শহীদ মিনারে পুলিশ দায়িত্বে থাকলেও তাকে চিকিৎসার কোন ব্যবস্থা করেনি। সন্ধ্যায় কজন সংবাদকর্মীদের খবরে চাষাড়া ফাঁড়ি পুলিশ এসে ওই বৃদ্ধকে নারায়ণগঞ্জ খানপুর ৩শ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে যান।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ১৪ জুলাই নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা শাসনগাঁও এলাকায় হাসিনা বেগম নামে ৮০ বছরের এক বৃদ্ধ মাকে বস্তাবন্দি করে দুই ছেলে ময়লার স্তূপে ফেলে দিয়ে যায়। পরে তৎকালীন সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা গাউছুল আজম ওই বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করান।

এছাড়াও গত বছর নারায়ণগঞ্জের নিতাইগঞ্জ এলাকায় এক বৃদ্ধা নারীকে পড়ে থাকতে উদ্ধার করে চার বন্ধু। তাকেও তার সন্তানরা এখানে এনে ফেলে দিয়ে যায়।

(ঢাকাটাইমস/১৭নভেম্বর/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত