সন্তান কোলে নিয়ে বিয়ে, অতঃপর রাতভর নাচলেন সেরেনা

ক্রীড়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ নভেম্বর ২০১৭, ০৯:০৪

সেরেনা উইলিয়ামস। টেনিস দুনিয়ায় একের পর এক রূপকথা যিনি লিখে এসেছেন এত দিন, তাঁর বিয়ে হল এক রূপকথার মঞ্চেই। যে বিয়ের থিম ছিল ‘বিউটি অ্যান্ড দ্য বিস্ট।’

ছত্রিশ বছর বয়সি সেরেনা বিয়ে করলেন তাঁর দীর্ঘদিনের বন্ধু অ্যালেক্সিস ওহানিয়ানকে। নিউ অর্লিয়েন্সে বিয়ের এই অনুষ্ঠানে যাঁরা ছিলেন, তাঁদের কেউ কেউ বলেছেন, ‘পুরো পরিবেশটা মোহময় হয়ে উঠেছিল। মনে হচ্ছিল, একটা স্বপ্নরাজ্যের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি আমরা।’

মার্কিন প্রচারমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, বিয়েতে রাতভর নেচেছেন সেরেনা। সেরেনা আর অ্যালেক্সিসের মধ্যে প্রথম দেখা হয়েছিল বছর কয়েক আগে রোমের এক হোটেলে। হোটেলের রেস্তরাঁয় প্রাতরাশ করছিলেন সেরেনা। কাছের টেবিলেই বসেছিলেন অ্যালেক্সিস। তাঁকে দেখে একটু বিরক্ত হয়ে পড়েন সেরেনা। অ্যালেক্সিসকে ওখান থেকে সরানোর মতলবেই বলে ওঠেন, ‘এই হোটেলে অনেক ইঁদুর আছে।’

একথা শোনার পরে অ্যালেক্সিসর পাল্টা জবাব ছিল, ‘আমি ব্রুকলিনের ছেলে। জীবনে প্রচুর ইঁদুর দেখেছি। সব সময় দেখি।’ এ কথা শোনার পরে সেরেনা তাঁকে ডেকে নেন পার্টিতে। বাকিটা, যাকে বলে ইতিহাস।

বিয়ের অনুষ্ঠানে থাকা কেউ কেউ পরে বলেছেন, ‘দুর্দান্ত একটা অনুষ্ঠান হল। সবাই খুব উপভোগ করেছে। অতিথিদের কাউকে কাউকে তো ভোর পর্যন্ত পার্টি করতে দেখা গিয়েছে।’

আরও কিছু অভাবনীয় ব্যাপার দেখা গিয়েছে বিয়ের আসরে। যেমন সেরেনা পরেছিলেন স্নিকার! সারা রাত নাচতে হবে তো! বিয়ের আসরে হাজির থাকা অতিথিদের হাতে উপহার হিসেবে তুলে দেওয়া হয় বিভিন্ন ট্রফিও।

বিয়ের কথা ঘোষণা করার আগে অন্য একটি ঘোষণায় গোটা দুনিয়ায় সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন সেরেনা। যখন তিনি ঘোষণা করেন, অস্ট্রেলীয় ওপেন জেতার সময় তিনি অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। অবিশ্বাস্য এই তথ্য সামনে আসার পরে নিজেকে অন্য রকম উচ্চতায় নিয়ে যেতে পেরেছিলেন সেরিনা।

(ঢাকাটাইমস/১৯নভেম্বর/ডিএইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত