জয়পুরহাটে ক্ষেত থেকে ধান কেটে নিল দুর্বৃত্তরা

জয়পুরহাট প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ নভেম্বর ২০১৭, ১৮:২৩

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার মুগর চন্ডিপুর গ্রামের ঝাঞ্জইর মৌজার মাঠে প্রায় আড়াই বিঘা জমি থেকে চুরি করে ধান কেটে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার মধ্যরাতে ধান চুরির ঘটনা ঘটে বলে মুগর চন্ডিপুর গ্রামের জমির মালিক শাহজাহান আলী বাবু অভিযোগ করেন।

সরেজমিনে জানা গেছে, চন্ডিপুর গ্রামের ঝাঞ্জইর মৌজার মাঠে শাহজাহান আলীর বাবুর প্রায় আড়াই বিঘা জমির ধান ক্ষেত এবরো-থেবরোভাবে কাটা রয়েছে। এই ঘটনা জানাজানি হলে রবিবার সকাল থেকে চুরি হওয়া ওই ধান ক্ষেত দেখতে আশপাশের গ্রাম থেকে ভিড়র করছেন শত শত শিশু-কিশোর ও নারী-পুরুষ। তারা সান্তনা দিলেও আহাজারি করছিলেন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক শাহজান আলী বাবু।

তিনি অভিযোগ করেন, অনেক রক্ত-ঘাম ঝরিয়ে ও দায়-দেনা করে ৩ মাস ধরে বর্না জাতের উচ্চ ফলনশীল আমন ধান চাষ করছেন তিনি। ধান পাকতে এখনো ১৫/২০ দিন বাকি রয়েছে। এ অবস্থায় পূর্বশত্রুতার জের ধরে শনিবার গভীর রাতে একই গ্রামের মৃত মোজাম্মেল প্রধানের ছেলে প্রতিবেশী ফেরদৌস প্রধান ১০/১৫ জন লোকসহ তার ক্ষেত থেকে ধান কেটে ফেরদৌসের বাড়িতে নিয়ে গেছেন বলে গ্রামের বেশ কয়েকজন মানুষ দেখে তাকে জানিয়েছেন।

একই গ্রামের শেখ ফরিদ হোসেন, আশরাফুল ইসলাম, পাশের জাতাইর গ্রামের ছানোয়ার হোসেন ও দেলোয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ফেরদৌস তার লোকজন নিয়ে শাহজাহান আলী বাবুর জমি থেকে তারা ধান কেটে নিয়ে যেতে দেখলেও ফেরদৌস প্রভাবশালী হওয়ায় ভয়ে তারা কিছু বলতে পারেননি। তারা  এ জঘন্যতম অপরাধের জন্য দোষীদের শাস্তি দাবি করেন।

অভিযুক্ত ফেরদৌস প্রধান অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তার বাড়িতে খরসহ যে ধান কাটা রয়েছে- সেগুলো তার নিজের জমির ধান।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফরিদ হোসেন জানান, এ ব্যাপারে অভিযোগ পাওয়া গেছে, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(ঢাকাটাইমস/১৯নভেম্বর/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত