মামার আপদ যখন ভাগ্নে!

ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ নভেম্বর ২০১৭, ২১:০৬

বাঙালির হাজার বছরের প্রচলিত প্রবাদ প্রবচন ‘মামা-ভাগ্নে যেখানে, আপদ নাই সেখানে।’ ময়মনসিংহে এই প্রবাদ প্রবচনটি উল্টে দিয়েছেন এক ভাগ্নে। ভাগ্নের কারণে মামা-ভাগ্নে এখন জনতার হাতে আটক হয়ে একে অপরকে দোষারোপ করছেন। আটক মামা রমজান আলী এবং ভাগ্নে মো. ইব্রাহিম সদর উপজেলার আব্দুল্লাহপুর এলাকার বাসিন্দা।

কমিউনিটি পুলিশ, এলাকাবাসী ও অভিযোগ প্রকাশ, ময়মনসিংহ সদর উপজেলার পরানগঞ্জ বাজারে জোনায়েদ জুয়েলার্স থেকে তিন দিন আগে রাতের আঁধারে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ তিন লাখ ২৫ হাজার টাকার মালামাল চুরি হয়। ভূক্তভোগী দোকান মালিক আনিছুর রহমান বিষয়টি স্থানীয় কমিউনিটি পুলিশকে জানান। কমিউনিটি পুলিশ নেতৃবৃন্দ গোপন সূত্রে খবর পান এই চুরি পাশ্ববর্তী আব্দুল্লাহপুর গ্রামের ইব্রাহিম করেছেন। গতকাল সোমবার দুপুরে পরানগঞ্জ কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি কাজল মিয়া এবং আব্দুল বারীর নেতৃত্বে ইব্রাহিমকে আটক করে কমিউনিটি পুলিশ কার্যালয়ে আনা হয়। পরে ইব্রাহিমকে ভয় দেখিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে ইব্রাহিম চুরির সত্যতা স্বীকার করে উপস্থিতদের বলেন, আমার মামা রমজান আলীর বাসায় চুরির মালামাল রেখেছি। মামা আমার মতো অনেকেরই সর্দার।

কমিউনিটি পুলিশের নেতারা সোমবার সন্ধ্যায় রমজানের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে চুরি হওয়া মামলাল উদ্ধার এবং রমজানকে আটক করেন। পরে রাতভর পরানগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে আটক করে রাখে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ইউনিয়ন কার্যালয়ে আটক থাকা মামা রমজান আলী রাতভর ঘটনা ফাঁস করার জন্য ভাগ্নে ইব্রাহিমকে দোষারোপ করে যাচ্ছিলেন।

কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও জুয়েলার্সের মালিক আনিছুর রহমান জানান, আটকদের কোতোয়ালী মডেল থানায় সোপর্দের প্রস্তুতি চলছে।

(ঢাকাটাইমস/২১নভেম্বর/এমডি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত