ঢাকায় চায়না এডুকেশন এক্সপো

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ নভেম্বর ২০১৭, ১৭:৫৭

ঢাকায় শুরু হয়েছে দুই দিন ব্যাপী চায়না এডুকেশন এক্সপো-২০১৭। বৃহস্পতিবার রাজধানীর কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউতে ডেইলি স্টার ভবনে এই এক্সপোর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

মেলার উদ্বোধন শেষে হাসানুল হক ইনু বলেন, চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক, বাণিজ্যিক ও সামাজিক ও শিক্ষা ক্ষেত্রে শক্তিশালী সম্পর্ক রয়েছে। চীন বাংলাদেশের পরিক্ষীত বন্ধু বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, সাম্প্রদায়িকতার স্থান বাংলাদেশে কখনো হয়নি ভবিষ্যতেও হবে না। টিপ, টুপি ও ঘোমটা দেখে মানুষের ধর্ম নির্ধারণ করা যায় না। দেশের জন্য কিছু করতে হলে সবাইকে মন্ত্রী এমপি হতে হয় না। এজন্য দেশ প্রেমিক হতে হয় বলেও মন্তব্য করেন হাসানুল হক ইনু।

এ সময় বিদেশে লেখাপড়া করলেও সেই জ্ঞানকে দেশের কল্যাণের জন্য কাজে লাগাতে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান তথ্যমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় চীনের সাউথ ওয়েস্ট ফরেস্ট্রি ইউনিভার্সিটির ডেপুটি ডীন মিস ইয়াং সিউই বলেন, চীন বাংলাদেশের বন্ধু প্রতিম দেশ তাই বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য চীনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দ্বার অবারিত। এসময় তিনি শিক্ষার্থীদের কম খরচে পূর্ণ কালীন বৃত্তি নিয়ে চীনে উচ্চতর ডিগ্রি নেয়ার আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে চীনের সাউথ এশিয়ান এডুকেশন অ্যাফেয়ার অ্যাডভাইজর ড. পার্থ সারথী গাঙ্গুলি বলেন, এ পর্যন্ত সানজেন ইন্টারন্যাশনালের মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে এক হাজার শিক্ষার্থী চীনের বিভিন্ন নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে গিয়েছে এবং তারা দেশে ফিরে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে গুরুত্বের সঙ্গে দেশ সেবায় ব্রত হয়েছে। এটা নিঃসন্দেহে প্রশংসার বিষয় বলে উল্লেখ করেন তিনি।

বিদেশে উচ্চশিক্ষায় সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান সানজেন ইন্টারন্যাশনালের উদ্যোগে ঢাকায় তৃতীয়বারেরর মতো আয়োজন হচ্ছে চায়না এডুকেশন এক্সপো। বাংলাদেশি এজেন্সির পাশাপাশি চীনের বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধরাও এসেছেন মেলায়।

এখানে রয়েছে চীনের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধির সঙ্গে কথা বলার সুযোগ, স্পট অ্যাডমিশন, সার্ভিসের ওপর বিশেষ ছাড় এবং ফাইল ওপেনিংয়ে আকর্ষণীয় গিফটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এতে ছাত্র, শিক্ষক ও অভিভাবকরা বিভিন্ন পরামর্শক প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে খোঁজখবর নিচ্ছেন। মেলা চলবে শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত।

এ প্রসঙ্গে চীনে উচ্চশিক্ষা পরামর্শক প্রতিষ্ঠান সানজেন ইন্টারন্যাশনালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মনিরুল হক বলেন, প্রায় শতভাগ স্কলারশিপের কারণে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের কাছে চীনে লেখাপড়ার আগ্রহ বেশি। মানসম্পন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ও ভিসা প্রসেসিংসহ সার্বিক সেবা সুনিশ্চিত করা আমাদের দায়িত্ব।

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত