হোম ভেন্যুতে জয়ে ফিরল চিটাগং

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৪ নভেম্বর ২০১৭, ২৩:০৭ | প্রকাশিত : ২৪ নভেম্বর ২০১৭, ২২:৩৯

হোম ভেন্যু চট্টগ্রামে গিয়ে জয়ে ফিরল চিটাগং ভাইকিংস। শুক্রবার সিলেট সিক্সার্সকে ৪০ রানে হারালো তারা। সাত ম্যাচ খেলে চিটাগংয়ের এটি দ্বিতীয় জয়। মোট পাঁচ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে এখন পঞ্চম অবস্থানে রয়েছে চিটাগং ভাইকিংস। আর নয় ম্যাচ খেলে সাত পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে সিলেট সিক্সার্স।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আজ বিপিএলে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে চিটাগং ভাইকিংসের দেয়া ২১২ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে ১৭১ রান সংগ্রহ করে সিলেট সিক্সার্স। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭১ রান করেন আন্দ্রে ফ্লেচার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪১ রান করেন বাবর আজম। চিটাগং ভাইকিংসের পক্ষে তাসকিন আহমেদ ৩টি, সৌম্য সরকার ২টি, স্টিয়ান ভ্যান জিল ২টি ও সানজামুল ইসলাম ১টি করে উইকেট নেন।

সিলেট সিক্সার্স ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৪৩ রানে প্রথম উইকেট হারায়। সানজামুল ইসলামের বলে সৌম্য সরকারের হাতে ক্যাচ হন দানুশকা গুনাথিলাকা। দলীয় ১২৩ রানে তাসকিন আহমেদের বলে সিকান্দার রাজার হাতে ক্যাচ হন আন্দ্রে ফ্লেচার। ৪৬ বল খেলে ৭১ রান করেন তিনি। এই রান করার পথে আটটি চার ও চারটি ছক্কা হাঁকান ফ্লেচার।

ইনিংসের ১৫তম ওভারে বাবর আজম ও সাব্বির রহমানকে ফেরান স্টিয়ান ভ্যান জিল। নাজিবুল্লাহ জাদরানের হাতে ক্যাচ হন বাবর আজম। আর সাব্বির রহমান এলবিডব্লিউ হন। ১৬তম ওভারে আবুল হাসান রাজু ও টিম ব্রেসনানকে আউট করেন সৌম্য সরকার।

দলীয় ১৪৪ রানে তাসকিন আহমেদের বলে শুভাশিসের হাতে ক্যাচ হন অধিনায়ক নাসির হোসেন। ইনিংসের শেষ ওভারে তাসকিন আহমেদের বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে লুইস রিসির হাতে ক্যাচ হন নুরুল হাসান সোহান। ইনিংস শেষে ৪ রান করে অপরাজিত থাকেন কামরুল ইসলাম রাব্বী।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ২১১ রান সংগ্রহ করে চিটাগং ভাইকিংস। এবারের আসরে এখন পর্যন্ত এটি দলীয় সেরা সংগ্রহ। গত ৭ নভেম্বর রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে ২০৫ রান সংগ্রহ করেছিল সিলেট সিক্সার্স।

চিটাগং ভাইকিংসের হয়ে আজ ৪৫ বল খেলে ৯৫ রান করেন জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটার সিকান্দার রাজা। এই রান করার পথে নয়টি চার ও ছয়টি ছক্কা হাঁকান তিনি। এবারের আসরে এখন পর্যন্ত এটি ব্যক্তিগত সেরা ইনিংস। গত ৮ নভেম্বর রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে ৭৮ রান করেছিলেন লুকে রঞ্চি।

সিকান্দার রাজা ছাড়াও লুকে রঞ্চি এবং স্টিয়ান ভ্যান জিলও আজ দারুণ ইনিংস খেলেন। ২৫ বল খেলে ৪১ রান করেন লুকে রঞ্চি। আর স্টিয়ান ভ্যান জিল ২৬ বল খেলে ৪০ রান করেন। সিলেট সিক্সার্সের পক্ষে কামরুল ইসলাম রাব্বী ২টি, আবুল হাসান ১টি, টিম ব্রেসনান ১টি ও নাসির হোসেন ১টি করে উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ফল: ৪০ রানে জয়ী চিটাগং ভাইকিংস।

চিটাগং ভাইকিংস ইনিংস: ২১১/৫ (২০ ওভার)

(লুকে রঞ্চি ৪১, সৌম্য সরকার ১, এনামুল হক বিজয় ৩, স্টিয়ান ভ্যান জিল ৪০, সিকান্দার রাজা ৯৫, নাজিবুল্লাহ জাদরান ১৯, লুইস রিসি ৪*; গুলাম মুদাচ্ছের ০/৩১, নাসির হোসেন ১/৩৪, তাইজুল ইসলাম ০/৩০, টিম ব্রেসনান ১/৩৮, আবুল হাসান ১/৪২, কামরুল ইসলাম রাব্বী ২/৩৫)।

সিলেট সিক্সার্স ইনিংস: ১৭১/৮ (২০ ওভার)

(দানুশকা গুনাথিলাকা ১০, আন্দ্রে ফ্লেচার ৭১, বাবর আজম ৪১, সাব্বির রহমান ৩, টিম ব্রেসনান ২, আবুল হাসান রাজু ০, নুরুল হাসান সোহান ২৮, নাসির হোসেন ৮, কামরুল ইসলাম রাব্বী ৪*; সানজামুল ইসলাম ১/২৪, সিকান্দার রাজা ০/১৩, শুভাশিস রায় ০/৩০, তাসকিন আহমেদ ৩/৩১, লুইস রিসি ০/২২, তানভীর হায়দার ০/২০, সৌম্য সরকার ২/১৭, স্টিয়ান ভ্যান জিল ২/১৪)।

প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ: সিকান্দার রাজা (চিটাগং ভাইকিংস)।

(ঢাকাটাইমস/২৪ নভেম্বর/এসইউএল)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত