হলফনামায় মিথ্যা তথ্য

সাংসদ মুক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইসিকে দুদকের চিঠি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০১৭, ২২:৪৩ | প্রকাশিত : ১০ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৮:১২

দশম সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্রের হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দেয়ায় ময়মনসিংহ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সালাহউদ্দিন আহম্মেদ মুক্তির বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে ইসিতে চিঠি দিয়ে সুপারিশ করেছে দমন কমিশনের (দুদক) ।

গত বৃহস্পতিবার দুদকের সচিব মো. শামসুল আরেফিন স্বাক্ষরিত চিঠিটি নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এসব তথ্য নিশ্চিত করে ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘গত ৭ ডিসেম্বর সচিবের সই করা চিঠি নির্বাচন কমিশনের পাঠানো হয়েছে।’  

চিঠিতে বলা হয়, সাংসদ  সালাউদ্দিন আহম্মেদ মুক্তি নির্বাচন কমিশনে হলফনামায় দেয়া সম্পদ বিবরণীতে সম্পদ কম দেখিয়ে অসত্য তথ্য দিয়েছেন।

জানা গেছে, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আগে ২০১৩ সালের ২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্রের সঙ্গে হলফনামার মাধ্যমে আট তথ্য জমা দেন সাংসদ সালাউদ্দিন। সেখানে তিনি তার স্থাবর ও অস্থাবর মিলে মোট সাড়ে ৪ লাখ টাকার সম্পদ আছে বলে উল্লেখ করেন।

কিন্তু এর আগে ২০১৩ সালের ৩০ জুন উপ কর অঞ্চল সার্কেল-৬ (মুক্তাগাছা) স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদের পরিমাণ ৫৬ লাখ ৪ হাজার উল্লেখ করা হয়েছে বলে দাবি দুদককের।  তা ছাড়া সাংসদ তার বাবার কাছ থেকে পাওয়া তিন লাখ টাকার সম্পদের তথ্যও নির্বাচন কমিশন ও আয়কর বিবরণীতে উল্লেখ করেননি। দুদক এই ধরনের অসত্য হলফনামা দাখিলকে নৈতিকতা পরিপন্থী বলে দাবি করছে।

গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ আইন (আরপিও) অনুযায়ী, হলফনামায় দেয়া মিথ্যা তথ্য ভোটের আগে প্রমাণ হলে নির্বাচন কমিশন সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল করতে পারে। আর ভোটের পর কোনো তথ্যের অমিল পেলে সংশ্লিষ্ট সাংসদের সদস্যপদ বাতিল করতে পারে। এরপর তা স্পিকারের দপ্তরে পাঠানোর বিধান রয়েছে কমিশনের। এর পরিপ্রেক্ষিতে সংসদ সচিবালয় ওই আসন শূন্য ঘোষণা করতে পারে।

(ঢাকাটাইমস/১০ডিসেম্বর/বিইউ/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত