সাবারো’র পিৎজা: স্বাদ ও সামর্থ্যের অনন্য মিশ্রণ

এম এইচ আলম
| আপডেট : ১২ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৮:১৬ | প্রকাশিত : ১২ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৭:৪৭

বয়স যাই হোক না কেন বন্ধু-বান্ধব, পরিবারের সদস্যদের নিয়ে পদোন্নতি, নতুন চাকরি, কিংবা জন্মদিন উদযাপনে অনেকেরই পছন্দ পিৎজা। আর সেই পিৎজায় যদি হয় মার্কিন স্বাদের তাহলে যেন আনন্দের সীমা থাকে না। এমন পিৎজার স্বাদ নিতে একবার ঘুরে আসতে পারেন রাজধানীতে সাবারো’র যেকোনো একটি আউটলেটে।   

রেস্টুরেন্টে খেতে গেলে অনেকেই দাম নিয়ে অস্বস্তিতে থাকেন। অনিচ্ছা সত্ত্বেও কিনতে হয় পুরো পিৎজা। গ্রাহকদের এই সমস্যা বিবেচনায় রেখে বিকল্প ব্যবস্থা করেছে সাবারোর পিৎজা। এখানে এক টুকরো পিৎজা আলাদা করে কিনতে পারবেন। ফলে বাড়তি খরচের ঝামেলা থাকছেই না। সাশ্রয়ীমূল্যে আপনি পেয়ে যাবেন স্পাইসি গার্লিক মাশরুম, সুপ্রিম বা মাশরুম পিৎজা, হট অ্যান্ড স্পাইসি স্বাদের পিৎজা।

এই স্বাদ পছন্দ না হলে মাশরুম বা চকলেট ফ্লেভারের পিৎজাও আপনার পছন্দের খাবার হতে পারে। কোমল পানীয়র জন্য অতিরিক্ত খরচ করতে না চাইলে বেছে নিতে পারেন নিউইর্য়কার কম্বো পিৎজা। বিনা খরচে পেয়ে যাবেন একটি ছোট কোমল পানীয়। অল্প খরচে গার্লিক ব্রেডস্টিকও আপনার পছন্দের আইটেম হতে পারে। পিৎজা যদি আপনার যদি পছন্দের আইটেম না হয় বেছে নিন ভিন্ন স্বাদের পাস্তা।

ভারী খাবারের পর অনেকেরই পছন্দ ডেজার্ট। এক্ষেত্রে চকলেট বা চিজ কেক হতে পারে একটি মানানসই ডেজার্ট আইটেম। এই শীতে এক মগ গরম কফিতে চুমুক না দিলে কি হয়? ক্যাপুচিনো বা আপনার পছন্দের অন্য কোনো স্বাদ কফি খাওয়ার আনন্দকে পূর্ণতা দেবে। ভাবছেন ফাস্টফুড খেলে ক্যালরি বাড়বে। সমস্যা নেই। সেক্ষেত্রে বেছে নিতে পারেন সালাদের কোনো আইটেম। পেটপূজাও যেমন হবে তেমনি নিশ্চিত হবে প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার।

আদরের সন্তানকে নিয়ে খেতে গেছেন। ভাবছেন অল্প বয়সী সন্তান অনেক চঞ্চল, সামলানো যাবে না। ভাবনা নেই। কিডস জোনে আপনার সন্তানকে রেখে নিশ্চিন্তে খেয়ে নিন। আমরা অনেকেই প্রথমবারের মত রেস্টুরেন্টে খেতে গেলে পরিবেশ কিংবা অফার নিয়ে অস্বস্তিতে থাকি। পরিবেশ ভাল হবে কি না, দামে হয়ত মিলবে না এমন ভাবনা মাথায় থাকে। সেক্ষেত্রে ফেইসবুকে সাবারো বাংলাদেশের ভিডিওটি দেখলে রেস্টুরেন্টের পরিবেশ কেমন সেই সর্ম্পকে ভাল ধারণা পাবেন। সাবারো বাংলাদেশের ফেইসবুক পেইজে দেখে নিতে পারেন কোনো বিশেষ ছাড় আছে কি না? ফেসবুকে লাইক দিলে যেকোন পোস্ট বা আপডেট নটিফিকেশন হিসেবে দেখাবে ফেসবুক। উপলক্ষ্য যাই হোক বন্ধু-বান্ধব বা পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বিজয় দিবস, বড়দিন বা নতুন ইংরেজি বছরকে সামনে রেখে গুলশান, বেইলি রোড, ধানমন্ডি, মোহাম্মদপুর, মিরপুর, উত্তরা, খিলগাঁও, লালবাগের যেকোনো একটি আউটলেটে ঘুরে আসতে পারেন।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে আমেরিকান ফ্রানচাইজ পিৎজা সাবারোর যাত্রা শুরু হয়। গ্রাহকদের চাহিদা বিবেচনায় ২০১৭ অক্টোবরে রাজধানীর আটটি জায়গায় একযুগে সাবারো বাংলাদেশের নতুন আউটলেট চালু হয়। গুণগত মান নিশ্চিত করতে সাবারোর পিৎজার চিজ আর সস সরাসরি আমদানি করা হয় যুক্তরাষ্ট্র থেকে। 

(ঢাকাটাইমস/১২ডিসেম্বর/এমএম/জেডএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত