বোলার ও অধিনায়ক সাকিব যখন ‘পলাতক’

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭, ১১:২১

অধিনায়ক নিজেই যখন কঠিন পরিস্থিতি থেকে পালিয়ে বাঁচতে চান, তখন সেটি দলের ওপরও নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। আমার ধারণা ঠিক এ কারণেই মানসিকভাবে বিপিএল ফাইনালে আগেই হেরে বসেছিল ঢাকা ডায়নামাইটস।

নিজের এক ওভার বাকি থেকে যাওয়া নিয়ে তাঁদের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের ব্যাখ্যা, 'যেটা ছিল (বাকি থাকা ১ ওভার), গেইল আউট হলে অবশ্যই করতে পারতাম। গেইল যতক্ষণ ছিল ওই সময় আমার বল করা ডিফিকাল্ট। যেহেতু লেফট আর্ম স্পিনার আমি, ওর জন্য খুব ইজি। সেজন্য শেষ ওভার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে, যেটা আমার করতেই হতো।' করলেন এবং মারও খেলেন। তার আগে নিজেকে আড়ালে রেখে ডেথ ওভারে বেদম মারের মুখে ঠেলে দিলেন খালেদ আহমেদের মতো আনকোরা বোলারকে!

এই পলায়ন প্রবণতা বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের সঙ্গে একদমই যায় না। কঠিন পরিস্থিতিতে বুক চিতিয়ে লড়তে জানেন বলেই না তিনি সাকিব। তারওপর বিপিএল ইতিহাসে এক আসরের সর্বোচ্চ ২২ উইকেট পাওয়া বোলার যদি মারের ভয়ে ওভাবে নিজেকে গুটিয়ে রাখেন, তখন অন্য বোলারদের জন্যও পরিবেশটা আরো ভীতিকর হয়ে ওঠে নিশ্চিতভাবেই। অধিনায়ককে নিজে এগিয়ে গিয়ে অন্যদের সামনে উদাহরণ হয়ে উঠতে হয়। যেমন হয়ে উঠেছেন মাশরাফি।

মোহাম্মদ রফিকের ভাষায় রংপুর রাইডার্স নামের 'ল্যাংড়া ঘোড়া'টি টগবগ করে ছুটেছে মাশরাফির সুযোগ্য নেতৃত্বেই। ঢাকার কোচ খালেদ মাহমুদ জাতীয় দলের অধিনায়ক থাকাকালীন কঠিন সময়ে খরুচে ওভারের জন্য কতই না মানুষের গালমন্দ শুনেছেন! পরে জানা গেছে, মার খাওয়া ওভারগুলোতে তাঁর আসলে বোলিংই করার কথা ছিল না। যে বা যাদের করার কথা ছিল, তাঁরা ওই সময়ে বোলিংই করতে চাননি। কারণ যে প্রান্ত থেকে করার কথা, সেখান থেকে হলে বোলিং করতে হত বাতাসের বিপক্ষে! অগত্যা মাহমুদই এসেছেন এবং এসে মারও খেয়েছেন কিন্তু চ্যালেঞ্জটাও নিয়েছেন। খেয়েছেন গালিও।

অধিনায়ককে এভাবেই বুক বাড়াতে হয় আবার পিঠও পেতে দিতে হয়। বিপিএল ফাইনালে বোলার এবং অধিনায়ক সাকিব দেননি এর কোনোটিই। যা তাঁর নিজের নামের সঙ্গেও কোনোভাবেই যায় না। যায় না বলেই এই দর্শক মনে উঁকি দিয়েছে সাকিবকে নিয়ে এতদিন ধরে 'পলাতক' থাকা হতাশাটাও।

মাসুদ পারভেজ : সিনিয়র ক্রীড়া সাংবাদিক।

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত