পুলিশ পদক পাচ্ছেন যে ১৮২ জন

আশিক আহমেদ, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:২১ | প্রকাশিত : ০২ জানুয়ারি ২০১৮, ০৮:০৬
ফাইল ছবি

দায়িত্ব পালনে সাহসিকতা এবং জনগণের জান-মাল রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য এবার ১৮২ জন কর্মীকে পুরস্কৃত করতে যাচ্ছে পুলিশ। তাদেরকে বিভিন্ন পদক দেয়া হবে বাহিনীটির পক্ষ থেকে। এর আগে এক সঙ্গে এত বেশিসংখ্যক কর্মকর্তাকে কখনো পুরস্কৃত করেনি পুলিশ।

চলতি বছর চারটি শাখায় সাহসিকতার জন্য ৩০ জনকে পুলিশ মেডেল বিপিএম দেয়া হবে। সেবার স্বীকৃতি হিসেবে ২৮ জন পাবেন একই পদক। আর সাহসিকতার জন্য ৭১ জনকে প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল বা পিপিএম দেয়া হবে। আর সেবার স্বীকৃতি হিসেবে এই পদক পাবেন ৫৩ জন।

যারা বিপিএম পাচ্ছেন তাদের মধ্যে ২৪ মার্চ সিলেটের আতিয়া মহলে জঙ্গিবিরোধী অভিযানের সময় বোমা বিস্ফোরণে নিহত র‌্যাবের সে সময়ের গোয়েন্দা প্রধান লে. কর্নেল আবুল কালাম আজাদের নামও রয়েছে। তাকে মরণোত্তর পদক দেয়া হবে। মরণোত্তর পুলিশ মেডেল দেয়া হবে আরও দুইজনকে।

জঙ্গি ও মাদকের প্রতিকার করার অঙ্গীকার নিয়ে আগামী ৮ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে পুলিশ সপ্তাহ। এই আয়োজনেই এসব পদক তুলে দেয়া হবে। পুলিশ সপ্তাহের উদ্বোধনী দিন রাজারবাগ পুলিশ লাইন মাঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশের প্যারেডে সালাম গ্রহণ করবেন ও পদক তুলে দেবেন।

এবার যারা পদক পাচ্ছেন তাদের মধ্যে আছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের জঙ্গিবিরোধী বিশেষ শাখা কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) ৩৬ সদস্যসহ ১০৬ জন পুলিশ সদস্য। জঙ্গিবিরোধী অভিযান সাফল্যের স্বীকৃতির জন্য পদকের জন্য মনোনীত হয়েছেন তারা।

প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুন্যালের তিনজন পুলিশ সদস্য আছেন পদকপ্রাপ্তদের তালিকায়।

যারা পদক পাচ্ছেন তাদের মধ্যে কনস্টেবল থেকে পরিদর্শক পদমর্যাদার সদস্যদের হার ৪৬ শতাংশ। বাকিরা সহকারী পুলিশ সুপার থেকে ঊর্ধ্বতন পদমর্যাদার।

গত বছর সাহসিকতা ও সেবার স্বীকৃতি হিসেবে বিপিএম ও পিপিএম দেয়া হয় ১৩২ জনকে। তারও আগের বছর এই স্বীকৃতি পান ১০২ জন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (মিডিয়া) আবদুল আলীম মাহমুদ বলেন, কাউকে পুরস্কৃত করা সংখ্যার বিষয় না। এটা তাদের কাজের পাওনা। তাদের যোগ্যতা অনুযায়ী এটা পাবে।’

পদকপ্রাপ্তদেব বাছাইয়ে কমিটির সদস্য সচিব অতিরিক্ত উপমহাপরিদর্শক মনিরুজ্জামান ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘ তারপরও অন্য বাহিনীতে যেভাবে পুরস্কৃত করা হয়, পুলিশে সেভাবে দেয়া সম্ভব হয়নি। হলে আরও বেশিসংখ্যক পুলিশকে এবার পুরস্কৃত করা উচিত ছিল।’

এই কর্মকর্তা বলেন, ‘এবার ১০৬ জন পেয়েছে জঙ্গিবিরোধী অভিযানে ভূমিকা রাখায়। জঙ্গি নির্মূলে গত এক বছর মোট ৩৫টি অভিযান হয়েছে। এই অভিযানে কনস্টেবল থেকে শুরু করে অতিরিক্ত মহাপরিদর্শকসহ সবাই জীবনে ঝুঁকি নিয়ে দায়িত্ব পালন করেছেন। সেই বিবেচনায় পুরস্কৃত করা হয়েছে।’

‘এদের কারণে জঙ্গিরা মাথাচাড়া দিতে পারেনি, সে কারণে দেশ এখনো শান্তিপূর্ণ আছে।’

পুলিশ সদর দপ্তরের একটি সূত্র জানিয়েছে, এবারের পুলিশ সপ্তাহ উপলক্ষে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এবারই প্রথম রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ পুলিশ সপ্তাহে উপস্থিত থাকবেন। প্রথম দিনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে রাতে পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে নৈশভোজে অংশ নেবেন তিনি। এ সময় পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তারা তার সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পাবেন।

বিপিএম পাচ্ছেন যারা

সাহসিকতায় র‌্যাবের গোয়েন্দা শাখার প্রধান লে. কর্নেল আবুল কালাম আজাদ (মরণোত্তর), সিলেট মহানগর পুলিশের পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) চৌধুরী মো. আবু কয়ছর (মরণোত্তর), সিলেটের জালালাবাদ থাকার পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম (মরণোত্তর), মোখলেসুর রহমান, অতিরিক্ত আইজিপি, ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া, অতিরিক্ত আইজিপি শফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (সিটিটিসি) । মো. মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত ডিআইজি (গোয়েন্দা এবং বিশেষ বিষয়ক) মো. মনিরুজ্জামান, অতিরিক্ত আইজিপি মো. আসাদুজ্জামান, র‌্যাবের পরিচালক (অপারেশন) লে. কর্নেল মাহবুব হাসান, র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মিফতাহ উদ্দিন আহমদ, চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার নূরে আলম মিনা, মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার শাহ জালাল, কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের উপ পুলিশ কমিশনার মহিবুল ইসলাম খান, পুলিশ সুপার এম এম হাসানুল জাহীদ, পুলিশ সুপার মো. আলী আশরাফ ভ’ইয়া, র‌্যাবের গোয়েন্দা শাখার মেজর শাহীন আজাদ, বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পূর্ব) মো. আরিফুর রহমান ম-ল, কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার এস এম নাজমুল হক, সোয়াটের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার মো. রহমত উল্লাহ চৌধুরী, কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সহকারী পুলিশ কমিশনার তৌহিদুল ইসলাম, সহকারী পুলিশ কমিশনার অহিদুজ্জামান নুর,।

বগুড়া গোয়েন্দা শাখার এসআই (নিরস্ত্র) মজিবর রহমান, জুলহাজ উদ্দীন, সোয়াটের এএসআই (সশস্ত্র) আনিছুর রহমান, হাইওয়ে পুলিশের কনস্টেবল পারভেজ মিয়া, সোয়াটের কনস্টেবল সজিব মিয়া, আসিব আহমেদ সাদ, শাওরিত হাসান, রিপন হোসেনও পাচ্ছেন বিপিএম।

বিপিএম সেবা পাচ্ছেন যারা

পুলিশের অতিরিক্ত আইজি শেখ হিমায়েত হোসেন, ডিআইজি (অপারেশন) মাহবুবুর রহমান, খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি দিদার আহম্মেদ, রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি এম খুরশীদ হোসেন, সিরাজগঞ্জে র‌্যাব-১২ এর অধিনায়ক সেলিম মো. জাহাঙ্গীর, এডিশনাল ডিআইজি (পার্সোনাল ম্যানেজমেন্ট-১) হাবিবুর রহমান, ডিএমপি উত্তরের গোয়েন্দা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত) শেখ নাজমুল আলম, পুলিশ সদরদপ্তরের অতিরিক্ত ডিআইডি  মনিরুল ইসলাম, ঢাকার পুলিশ সুপার শাহ মিজান শাফিউর রহমান নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মঈনুল হক, নোয়াখালীর পুলিশ সুপার ইলিয়াছ শরীফ, কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন খান, ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, দিনাজপুরের পুলিশ সুপার হামিদুল আলম, শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন পিপিএম, বরগুনার পুলিশ সুপার বিজয় বসাক, স্পেশাল ব্রাঞ্চের বিশেষ পুলিশ সুপার  (গোপনীয়) এ এফ এম আনজুমান কালাম, পুলিশ সদরদপ্তরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লা, ডিএমপির উইমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের উপকমিশনার আসমা সিদ্দিকা মিলি, ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আব্দুল মান্নান এবং স্পেশাল ব্রাঞ্চের  অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গোপানীয়) মো. মাসুদ আলম পাচ্ছেন এই পুরস্কার।

কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার মো. নাজমুল ইসলাম, সিনিয়র সহকারী কমিশনার মো. আহসান হাবীব, পুরিশ সদরদপ্তরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (গোয়েন্দা শাখা) মো. রকিবুল হাসান, ডিএমপির এসি নাজমুল হাসান ফিরোজ, ডিএমপির নিউমার্কেট জোনের বিভাগের সিনিয়র সহকারী কমিশনার সাজ্জাদ ইবনে রায়হান, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল প্রেষণে পাঠানো সিআইডির সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার হরি দেবনাথ এবং সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. ওবায়েদ উল্লাহ পাচ্ছেন এই পুরস্কার।

পিপিএম পাচ্ছেন যারা

র‌্যাব সদরদপ্তরের প্রকল্প পরিচালক লে. কর্নেল আরিফ উদ্দিন মাহমুদ, নারায়ণগঞ্জ র‌্যাব-১১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. কামরুল হাসান, র‌্যাবের গোয়েন্দা শাখার পরিচালক লে. কর্নেল মো. মাহাবুব আল, র‌্যাবের এয়ার উইংয়ের পরিচালক লে. কর্নেল সৈয়দ নজরুল ইসলাম, রাজশাহীতে র‌্যাব-৫ এর লে. কর্নেল মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম, বরিশালে র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. আনোয়ার উজ জামান, ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের উপ কমিশনার প্রলয় কুমার জোয়ার্দার, র‌্যাবের গোয়েন্দা শাখার উপপরিচালক স্কোয়াড্রন লিডার এ এন মোসাব্বির, র‌্যাব-৫ এর ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর এ এম আশরাফুল ইসলাম, র‌্যাবের গোয়েন্দা শাখার উপপরিচালক মেজর মো. মনিরুল ইসলাম, মেজর এইচ এম সাজ্জাদ হোসেন, মেজর মাহমুদুল হাসান তারিক, র‌্যাবের অপারেশন শাখার উপপরিচালক মেজর এস এম সুদীপ্ত শাহীন, র‌্যাব-১০ এর কোম্পানি কমান্ডার মুহম্মদ মহিউদ্দিন ফারুকী, র‌্যাব-৪ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আ ফ ম আনোয়ার হোসেন খান, চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (সোয়াট) এর অতিরিক্ত উপকমিশনার মির্জা সায়েম মাহমুদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাহবুব আলম খান, ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ কমিশনার মো. জাহিদুল হক তালুকদার, একই ইউনিটের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার এস এম জাহাঙ্গীর হাসান, জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার মো. শহিদুর রহমান, জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার শেখ ইমরান হোসেন, সহকারী পুলিশ কমিশনার, মো. মাহবুব উর রশীদ, পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মোহাম্মদ গোলাম মওলা, মৌলভীবাজার সদরের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার মো. রাশেদুল ইসলাম, বরিশালে র‌্যাব-৮ এর জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দিন।

চট্টগ্রামে র‌্যাব-৭ এর জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার মিমতানুর রহমান, নারায়ণগঞ্জের র‌্যাব-১১ এর জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার মো. আলেপ উদ্দিন, ডিএমপি (ডিবি)র জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার রাহুল পাটোয়ারী, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড থানার ওসি ইফতেখার হাসান, গাজীপুরের টঙ্গী থানার ওসি মো. ফিরোজ তালুকদার, আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাহিদুল ইসলাম, ঢাকার কদমতলী থানার উপ-পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মো. লালবুর রহমান, মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া থানার এস আই (নিরস্ত্র) আসলাম খান, এস আই (নিরস্ত্র) অহিদুজ্জামান, বরিশাল কোতয়ালি থানার এস আই মো. মহিউদ্দিন আহমেদ, মৌলভীবাজার সদর থানার এস আই (নিরস্ত্র) আবদুল মালিক, কক্সবাজারের মহেশখালী থানার এস আই (নিরস্ত্র) শাওন দাস, কুমিল্লার কসবা থানার এস আই (নিরস্ত্র) রফিকুল ইসলাম, কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের এস আই, (সশস্ত্র) মো. নজরুল ইসলাম ভূইয়া, ডিএমপির সোয়াট টিমের এস আই (নিরস্ত্র) মো. আকবর হোসেন, কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের এস আই (নিরস্ত্র) মঈন উদ্দিন ওমর ফারুক, এস আই (নিরস্ত্র) মাহফুজুল হক চৌধুরী মো. রফিক উদ্দিন, এসআই (নিরস্ত্র) এস এম রাইসুল ইসলাম, বগুড়ার গোয়েন্দা পুলিশের এস আই (নিরস্ত্র) মো. ফারুক হোসেন, ও এস আই (নিরস্ত্র) মো. আলমগীর হোসেন, কুমিল্লার হাইওয়ে পুলিশের সার্জেন্ট মো. মোস্তফা কামাল, চট্টগ্রাম সোয়াটের এ টি এস আই মো. জিহাদ হোসেন, রাজশাহী ট্রাফিক পুলিশের এ টি এস আই তাইজুল ইসলাম, পুলিশ সদরদপ্তরের এএসআই (নিরস্ত্র) আনোয়ার হোসেন, সিলেট মহানগর পুলিশের এএসআই (নিরস্ত্র) জনি লাল দে, ঝিনাইদহ পুলিশের এএসআই মহসিন আহমেদ ও নায়েক আক্তারুজ্জামান, কনস্টেবল মো. রাহেদ আলম, কনস্টেবল আব্দুল্লাহ আলম সাথী কনস্টেবল মো. জহির উদ্দিন, নারায়ণগঞ্জ এসবির এএসআই আজিজুর রহমান, কাউন্টার টেরোরিজমের এএসআই মো. আবদুল করিম, এএসআই (নিরস্ত্র) মো. মোতাহার হোসেন, ঢাকার বংশাল থানার এএসআই (নিরস্ত্র) মো. নুরুজ্জামান সরকার, রাজশাহী গোয়েন্দা পুলিশের এ এস আই (নিরস্ত্র) উৎপল কুমার, র‌্যাব সদর দপ্তরের ল্যান্স কর্পোরাল মো. নাজমুল ইসলাম, ল্যান্স কর্পোরাল মো. মিজানুর রহমান, ঢাকার হাজারীবাগ থানার কনস্টেবল মো. গোলাম আজম, পুলিশ অধিদপ্তরের কনস্টেবল আবু নাইম ও কনস্টেবল মো. খলিলুল্লাহ, ময়মনসিংহের ভালুকা মডেল থানার কনস্টেবল মো. রাসেল আহমেদ, র‌্যাব সদর দপ্তরের সৈনিক মো. ইসমাইল হক, বগুড়া জেলা গোয়েন্দা পুলিশের কনস্টেবল মো. ইসমাইল হোসেন, বগুড়া পুলিশ লাইনের কনস্টেবল মো. হেলাল উদ্দিন পাচ্ছেন এই পদক।

এ ছাড়া পুলিশ অধিদপ্তরের ডিআইজি রৌশন আরা বেগম, বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম, গাজীপুর হাইওয়ে পুলিশের এসপি মো. শফিকুল ইসলাম, ঢাকা এসবির বিশেষ পুলিশ সুপার এজাজ আহমেদ, টাঙ্গাইলের এসপি মাহবুব আলম, ঢাকার সিআইডির এসএস শেখ মুহাম্মদ রেজাউল হায়দার, হবিগঞ্জের এসপি বিধান ত্রিপুরা, জামালপুরের এসপি দেলোয়ার হোসেন, ডিএমপির ডিসি হামিদা বেগম, মতিঝিল জোনের ডিসি মো. আনোয়ার হোসেন, কুষ্টিয়ার এসপি এস এম মেহেদী হাসান, ডিএমপির ট্রাফিক পশ্চিমের ডিসি লিটন কুমার সাহা, কাউন্টার টেররিজমের ডিসি এ এইচ এম আবদুর রকিব, পুলিশ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল জহির ও জেসমিন কেকা, দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, ঢাকার ডিবি (পশ্চিম) অতিরিক্ত উপ কমিশনার মো. গোলাম মোস্তফা রাসেল, রংপুরের পিবিআইয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহিদুল্লাহ কাওসার, সিরাজগঞ্জে র‌্যাব-১২ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহিদুল্লাহ কাওসার, পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিয়া মোহাম্মদ আশিস বিন হাছান, নেত্রকেণার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সানোয়ার হোসেন, কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. তানভীর সালেহীন ইমন, ঢাকার ডিবি (পূর্ব) অতিরিক্ত উপ কমিশনার মাইনুল ইসলাম, ময়মনসিংহ পিবিআইয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু বক্কর সিদ্দিক, কক্সবাজার টুরিস্ট পুলিশের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার হোসাইন মোহাম্মদ রায়হান কাজেমী, নারায়ণগঞ্জে র‌্যাব-১১ এর জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন চৌধুরী, পাবনার জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার, এম এম, মোহাইমেনুর রশিদ, ডেমরার জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার ইফতেখারুল ইসলাম ও মো. এহসান উদ্দিন চৌধুরী, ঢাকার স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের সহকারী পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলাম, র‌্যাব সদর দপ্তরের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার ইয়াসিন আরাফাত ওআতিকুল হক প্রধান, চট্টগ্রারে আকবরশাহ থানার ওসি মো. আলমগীর, টাঙ্গাইলে ডিবির ওসি অশোক কুমার সিংহ, ঢাকার এসবির পরিদর্শক মো. ইউনুস আলী শেখ, ও মো. মতিউর রহমান, ঢাকার নিউমার্কেট থানার ওসি মো. আতিকুর রহমান, চট্টগ্রাম পিবিআইয়ের পরিদর্শক (নিরস্ত্র) সন্তোষ কুমার চাকমা, ঢাকার যাত্রাবাড়ী থানার ওসি মো. আনিসুর রহমান, শেরে বাংলানগর থানার ওসি গনেশ গোপাল বিশ্বাস, নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানার ওসি মো. কামাল উদ্দিন, হাজীপুরের শ্রীপুর থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান, ময়মনসিংহের কোতয়ালি থানার ওসি মো. কামরুল ইসলাম, ঢাকার শাহবাগ থানার ওসি আবুল হাসান, তুরান থানার ওসি মো. নুরুল মোত্তাকিম, নারায়ণগঞ্জ ডিবির ওসি মো. মাহবুবুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা থানার ওসি মো. মহিউদ্দিন, কুমিল্লার কোতয়ালি থানার ওসি মো. আবু সালাম, কাউন্টার টেররিজমের পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মো. আবুল বাসার, ডিএমপির বোম ডিসপোজাল ইউনিটের পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মো. আবুল বাশার, চট্টহগ্রাম রিজার্ভ অফিসের রিজার্ভ অফিসার-১ এসআই (নিরস্ত্র) কাজী শফিকুল ইসলাম, নরসিংদী গোয়েন্দা শাখার এসআই আবদুল গাফফার, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের এসআই (সশস্ত্র) আব্দুল আজিজ পাচ্ছেন এই পদক।

(ঢাকাটাইমস/০২জানুয়ারি/এএ/ডব্লিউবি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত