টেলিযোগাযোগ ও আইসিটি খাতকে ডুবন্ত নৌকা বললেন জব্বার

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৬ জানুয়ারি ২০১৮, ১৮:৫০ | প্রকাশিত : ০৬ জানুয়ারি ২০১৮, ১৬:৪০

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়কে ডুবন্ত নৌকার সঙ্গে তুলনা করেছেন এই মন্ত্রণালয়ে নবনিযুক্ত মন্ত্রী। বলেছেন, এই ডুবন্ত নৌকাকে জাগিয়ে তোলার দায়িত্ব তাকে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেয়ার চার দিনের মাথায় শনিবার গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন জব্বার।

সকালে হেলিকাপ্টারে করে গোপালগঞ্জে যান। পরে শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা জানান তিনি। পরে তিনি বঙ্গবন্ধুর আত্মার শান্তির জন্য মোনাজাত করেন।

মঙ্গলবার শপথ নেয়ার পর গত বুধবার মন্ত্রণালয়ের বরাদ্দ পান জব্বার। আর পরদিন তিনি সচিবালয়ে গিয়ে দায়িত্ব বুঝেও নেন।

মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাওয়ার পর পর জব্বারের এক বক্তব্য আলোচনা তৈরি করেছে। বর্তমান সরকারের আমলে ডাক ও টেলিযোগাযোগ এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ে ব্যাপক অর্জন এবং কর্মযজ্ঞ হলেও জব্বার টেলি যোগাযোগ খাত ক্যান্সারে আক্রান্ত এবং আইসিটি খাত অন্ধ গলিতে বলে মন্তব্য করেন।

টুঙ্গিপাড়ায় জব্বার বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী একটি ডুবন্ত নৌকাকে জাগিয়ে তোলার দায়িত্ব আমার ওপর দিয়েছেন। আমি সফল হতে পারব এমন আস্থা ও বিশ্বাস থেকে প্রধানমন্ত্রী আমার ওপর এ দায়িত্ব দিয়েছেন। আমি সফল হলে প্রধানমন্ত্রীও সফল হবেন, শক্তিশালী হবেন। তাঁর সম্মান রাখার জন্য আমি কাজ করব।’

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে গিয়ে জব্বার বলেন,তিনি এই মন্ত্রণালয়ের ছাত্র। তিনি কাজ বুঝতে চান, শিখতে চান। কত দিন এই ছাত্র থাকতে চান, এমন প্রশ্নে গোপালগঞ্জে মন্ত্রী বলেন, ‘সাতদিন আমি ছাত্র থাকব, এরপর আমি আমার কাজ শুরু করব।’

আইসিটি খাতে সরকারও ব্যবসা করবে বলে জানান জব্বার। বলেন, ‘প্রাইভেট অপারেটরগুলো আমাদের ফ্রিকোয়েন্সি ও ব্যান্ডউইথ ব্যবহার করে ব্যবসা করছে। তারা পারলে আমরা পারব না কেন? আমার বিশ্বাস, কোথাও কোনো ভুল ছিল অথবা ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে যাঁরা ছিলেন তাঁরা সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি। আমি এগুলো চিহ্নিত করব।’

‘ব্যর্থ হওয়ার কোনো কারণ নেই। আমার বিশ্বাস, ব্যর্থতাগুলো চিহ্নিত করতে পারলে আমরাও ব্যবসা করতে পারব’, যোগ করেন মোস্তাফা জব্বার।

ঢাকাটাইমস/০৬জানুয়ারি/প্রতিনিধি/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত