চুয়াডাঙ্গা চেম্বার নির্বাচন নিয়ে পাল্টা-পাল্টি সংবাদ সম্মেলন

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:২৩

চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি নির্বাচনের ঘোষিত তফসিলের পক্ষে-বিপক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেছেন প্রতিদ্বন্দ্বীরা। ঘোষিত তফসিল বাতিল করে নতুন করে তফসিল ঘোষণার দাবি জানিয়েছে গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা পরিষদ। আর নতুন করে তফসিল ঘোষণার সুযোগ নেই বলে জানিয়েছে প্রগতিশীল ও উন্নয়ন পরিষদ।

দুই পরিষদের নেতারা পৃথক সংবাদ সম্মেলন করে এসব দাবি জানান।

গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা পরিষদের পক্ষে চেম্বারের সাবেক সভাপতি হাবিবুর রহমান লাভলু শুক্রবার সকালে সংবাদ সন্মেলন করে নতুন করে তফসিল ঘোষণার দাবি জানান। এসময় তিনি বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের গেজেটের ২১ক ধারায় কেউ একটানা দুই মেয়াদের অধিক নির্বাচন করতে পারবেন না। সে অনুযায়ী ২ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে অংশ নেয়া বর্তমান সভাপতিসহ ১৫ জন প্রার্থী নির্বাচনের অযোগ্য হচ্ছেন। তাই নতুন করে তফসিল ঘোষণা করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনের কয়েক ঘণ্টা পরে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেন বর্তমান সভাপতি ইয়াকুব হোসেন মালিক। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ১৫ মার্চ ঘোষিত গেজেট অনুযায়ী আমরা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছি। নতুন গেজেট প্রকাশ হয়েছে দেড় মাস পর। নতুন গেজেটে বলা হয়েছে, এই গেজেট কার্যকরের দিন হতে নতুন আইন বলবৎ হবে। সুতরাং নির্বাচন নিয়ে কোন সংশয়ের সুযোগ নেই।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ আইনি জটিলতা শেষে গত বছরের ১২ নভেম্বর চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অব কমার্স অ্যা্ন্ড ইন্ডাস্ট্রি ২০১৮-২০২০ মেয়াদের নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে তফসিল ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ২ ফেব্রুয়ারি চেম্বারের নির্বাচন হওয়ার কথা। ইতোমধ্যে নির্বাচনের খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ ও মনোনয়নপত্র যাচাই-বাচাইসহ সব কার্যক্রম শেষ হয়েছে।

নির্বাচনে প্রগতিশীল-উন্নয়ন পরিষদ ও গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা পরিষদ নামে দুটি প্যানেলে বিভক্ত হয়ে প্রার্থী ঘোষণা করেছেন। ১৪টি পরিচালক পদে ২৭ জন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়ে প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত রয়েছেন।  এছাড়া ৫টি সহযোগী সদস্য পদে লড়বেন ৭ জন।

(ঢাকাটাইমস/১২জানুয়ারি/প্রতিনিধি/ওআর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত