নলছিটি জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলের কার্যক্রমে অব্যবস্থাপনার অভিযোগ

ঝালকাঠি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:১৩

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরে অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনার অভিযোগ উঠেছে। সহকারী প্রকৌশলী মো. জহিরুল হক খান এর সঙ্গে জড়িত বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

ভুক্তভোগী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা অভিযোগ করেন, উপজেলার মধ্যে এ কার্যালয়টি অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। কিন্তু বর্তমান সহকারী প্রকৌশলীর স্বেচ্ছাচারিতার কারণে কর্মচারীরাও দুর্নীতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়ছেন। ফলে কার্যক্রম স্থবির হয়ে রয়েছে।

জানা গেছে, ঝালকাঠির নলছিটি পৌর এলাকায় পাইপ লাইনের মাধ্যমে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহে উপজেলার নান্দিকাঠিতে নির্মাণ করা হচ্ছে ‘সারফেস ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট’। এ নির্মাণ কাজে ব্যয় ধরা হয়েছে পাঁচ কোটি ৭৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকা। ঢাকার মেঘনা স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ২০১৭ সাল থেকে নির্মাণ কাজ শুরু করেছে। ইতোমধ্যে পাইপ লাইন বসানো এবং বোরিংয়ের অধিকাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নির্মাণ কাজে ব্যবহার করছে নিম্নমানের উপকরণ। সম্প্রতি ঢালাইয়ের জন্য ঠিকাদার মজুদ করেন নিম্নমানের পাথর, রড ও বালি। পরে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর ও এলাকাবাসী নিম্নমানের ওই উপকরণ ব্যবহারের বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে অবহিত করলেও কর্তৃপক্ষ নীরব ভূমিকায় রয়েছে।

অভিযোগ রয়েছে, সহকারী প্রকৌশলী জহিরুল হক ঠিকাদারের সঙ্গে গোপনে নিম্নমানের এসব উপকরণ দিয়ে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।

এই অভিযোগ সম্পর্কে জহিরুল হকের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘এ ব্যাপারে কোনো তথ্য দেয়া যাবে না। কোনো তথ্য পেতে হলে তথ্য অধিকার আইনে লিখিতভাবে তথ্যপ্রাপ্তির আবেদন করতে হবে।’

এ ব্যাপারে নলছিটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আশ্রাফুল ইসলাম বলেন, ‘এই কাজের ব্যাপারে সহকারী প্রকৌশলী জহিরুল হক আমাকে এখনো কিছু জানাননি। উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত না করার বিষয়টি ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসক স্যারকে জানানো হয়েছে।’

(ঢাকাটাইমস/১৬জানুয়ারি/ওয়াইএ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত