ময়মনসিংহে রেলক্রসিং ভেঙে পড়লে সর্বনাশ

ব্যুরো প্রধান, ময়মনসিংহ
 | প্রকাশিত : ২০ জানুয়ারি ২০১৮, ১২:১৪

ময়মনসিংহ শহরের মিন্টু কলেজ সংলগ্ন রেলওয়ের সড়ক গেইট ভ্যডিয়ার (লোহার গেইট) ভেঙে পড়ে যাওয়া এখন সময়ের ব্যাপার। এমনটাই আশঙ্কা চলাচলকারীদের।

এটি পথচারীদের মাথায় পড়ে গেলেই সঙ্গে সঙ্গে মৃত্যু অথবা আহত হওয়ার ঝুঁকি।

স্থানীয়রা বলছেন, ভেঙে পড়লেই বা রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কি আসে-যায়? হয়তো তখন তাদের মুখ থেকে সুর বেরিয়ে আসবে সরি (দুঃখিত)।

তারা বলছেন, অনিয়মের একটা শেষ আছে। দীর্ঘদিন যাবত জোড়াতালি দিয়ে চলছে এটি। ইতোমধ্যে বেহাল দশায় রেলওয়ের লোহার এই গেইটটি।

ঢাকাটাইমসেও ইতোপূর্বে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। সংবাদে বলা হয়েছে, ময়মনসিংহ শহরের ব্যস্ততম এলাকা বিদ্যাময়ী স্কুল হয়ে পচা পুকুরপাড় যেতে হলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রেললাইন পারাপার হতে হয় পথচারীদের। এখানে নেই কোন রেলক্রসিং।

ময়মনসিংহ রেল জংশন স্টেশন থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছেড়ে যাওয়া প্রতিটি ট্রেন এই ক্রসিং অতিক্রম করে। এরকম অনেক লাইনেই নেই রেলক্রসিং। ফলে প্রায় ঘটে ট্রেন দুর্ঘটনা।

অপরদিকে ময়মনসিংহে রেল জংশন সংলগ্ন শহরের নতুন বাজার রেল ক্রসিং এলাকায় ফেসিং ও ট্রেনিং জয়েন্ট পয়েন্টের লাইনের স্লিপার বেঁকে গেছে। সেখানে নতুন ব্রিজ নির্মাণের সঙ্গে সঙ্গেই রাস্তা বেদখল হয়ে যাচ্ছে। জোড়াতালি স্লিপার আর ব্রিজের রাস্তা বেদখলের কারণে নির্মাণে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হওয়ায় চলাচল ঝূঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে।

সচেতনতা ও কর্তৃপক্ষের তদারকির অভাবেই এমনটা হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্টরা অভিযোগ করেছেন।

এব্যাপারে ময়মনসিংহ রেল বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী জহিরুল  ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ক্রসিংয়ের বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে। সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চলছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, যেই লাউ সেই কদু। কোন কথাই শুনছে না রেলওয়ে কর্মকর্তারা। চোখ-কান তাদের বন্ধ।

দায়িত্বে নিয়োজিত বড় বড় কর্মকর্তাদের নিকট অনুরোধ করে তারা বলছেন, দুর্ঘটনা ঘটার আগেই দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তাদের অবহেলার বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হোক।

(ঢাকাটাইমস/২০জানুয়ারি/এমডি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত