সিএনজির ভোগান্তি অ্যাপেও

এম গোলাম মোস্তফা, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:০২ | প্রকাশিত : ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ১২:১৬

অ্যাপভিত্তিক গাড়ি ভাড়ার সেবা উবার পাঠাওয়ের ধাক্কায় সুপথে আসার ঘোষণা দিয়ে সিএনজি অটোরিকশার জন্যও পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হয়েছে অ্যাপ। কিন্তু সেই অ্যাপ ডাউনলোড করা অটোরিকশা ভাড়া করার মতোই কষ্টকর হয়ে গেছে।

অটোরিকশা ভাড়ার জন্য বানানো অ্যাপটি গুলের প্লে স্টোরে খুঁজে পাওয়া সিএনজি খুঁজে পাওয়ার চেয়েও কঠিন। Hellow নামের অ্যাপটি ডাউনলোডের জন্য সার্চ দিলে কখনো পাওয়া যায় আবার কখনো যায় না। ।

অটোরিকশা চালুর পর চালক-মালিকদের নৈরাজ্যে রাজধানীতে এই যানবাহনগুলো ভাড়া করাই ছিল এক বিরক্তির নাম। একাধিকবার ভাড়া বাড়ানোর সময় মিটারে যাত্রীর ইচ্ছামত গন্তব্যে যাওয়ার অঙ্গীকার করেও কথা রাখেনি চালকরা। যখন এই যানবাহনগুলো নিয়মের গণ্ডিতে আনা অসম্ভব মনে হচ্ছিল তখন ঢাকায় চালু হয় অ্যাপভিত্তিক গাড়ি ও মোটরসাইকেল ভাড়ার সেবা। আর এর ধাক্কা লাগে অটোরিকশায়। যাত্রীরা মুখ ফিরিয়ে নিতে থাকে তিন চাকার যানবাহন থেকে। আর অস্তিত্ব বাঁচাতে উদ্যোগী হয় অটো মালিক-চালকরা। তারাও নির্ধারিত ভাড়ায় মিটারে যাওয়ার অঙ্গীকার করে অ্যাপ চালুর কথা জানায়।

গত ১৬ জানুয়ারি রাজধানীতে সংবাদ সম্মেলন করে এই অ্যাপ পরীক্ষামূলক চালুর ঘোষণা দেয়া হয়। অ্যাপ পরিচালনা প্রতিষ্ঠান টপ আই আই এর মুখপাত্র রোকেয়া প্রাচী সেদিন বলেন, ‘হ্যালো’র মাধ্যমে রাজধানীতে সিএনজি অটোরিকশার যে হয়রানি ছিল এর সমাধান হবে। সরকারি নীতিমালার ভিত্তিতেই এই অ্যাপ চলবে, সেখানে যে ভাড়া নির্ধারণ করা হবে সেভাবেই মিলবে এই সেবা।’

এই অ্যাপ চালু হলেও অ্যাপে অটোরিকশা ১ মার্চ থেকে পাওয়া যাবে বলেও জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে। জানানো হয়, এই কয়দিন অ্যাপে কী সমস্যা আছে সেটির সমাধানের চেষ্টা করা হবে।

Hellow নামে অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপল স্টোর থেকে অ্যাপটি বিনামূল্যে ডাউনলোড করার কথা। কিন্তু এই নামে সার্চ দিলে গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপটি খুঁজে পাওয়ায়ই অনেক কঠিন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অ্যাপ পরিচালনাকারী সংস্থা টপ আই আই এর পরিচালক বিপণন রাকিবুল হাসানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘হ্যাঁ, কিছু কিছু সমস্যা হচ্ছে। এগুলো চিহ্নিত করে ঠিক করা হচ্ছে।’

রাকিবুল বলেন, ‘আমরা অটোরিকশা ভাড়া করার সেবাটি কিন্তু এখনো চালু করিনি। এটি নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি হচ্ছে। কে কী সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে সেগুলো দেখার জন্যই কিন্তু অ্যাপটি ছেড়েছি। আমরা ১৬ জানুয়ারি প্রেস কনফারেন্সে বলেছিলাম ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত অ্যাপটি ছাড়া হলো সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে সমাধান করার জন্য। আমরা যখন যে সমস্যাগুলো পাচ্ছি সেগুলো তাৎক্ষণিকভাবে সমাধান করছি।’

‘এরই মধ্যে আমাদের কাছে অনেক অভিযোগই আসছে, সেটা আমরা সমাধান করে ফেলছি। আমাদের হাতে আরও সময় আছে আশা করি আমরা এই সময়ের মধ্যেই আমরা সমস্যাগুলো সমাধান করে ফেলব।’

অ্যাপটি খুঁজে পাওয়ার বিষয়ে ঝামেলা ছাড়া আর কী কী অভিযোগ পাচ্ছেন-জানতে চাইলে টপ আই আই এর এই কর্মকর্তা বলেন, ‘অনেক সময় রেজিস্ট্রেশন করার সময় কোডটি সময় মতো যায় না, সেটার জন্য অভিযোগ এসেছে। আমরা তাৎক্ষণিকভাবে সেটা সমাধান করে দিচ্ছি। এখন আর এই সমস্যাটা হচ্ছে না।’

রাকিবুল জানান, তাদের অ্যাপটি নিয়ে রাজধানীতে ১৫টি থানায় তাদের তদারকি দল কাজ করছে। তিনি বলেন, ‘আমারা এক্সপেরিমেন্ট (পরীক্ষা-নিরীক্ষা) করছি। পাবলিক সার্ভিস যখন চালু করব, তখন যেন প্রথম দিন থেকে যেন যাত্রীরা নির্ঝঞ্ঝাট সেবা দিতে পারি সে চেষ্টা করছি।’

তবে ১৬ জানুয়ারির সংবাদ সম্মেলনে ভাড়ার বিষয়ে যা বলা হয়েছিল, সেই জায়গা থেকে সরে আসার ইঙ্গিত দিয়েছেন রাকিবুল হাসান। সেদিন বিআরটিএ নির্ধারিত ভাড়ায় চলাচলের ঘোষণা দিলেও রাবিকুল এখন বলছেন, ভাড়া কার চেয়ে কিছুটা বেশি হতে পারে।

‘আমাদের ভাড়া এখনো নির্ধারণ করা হয় নাই। তবে সরকার নির্ধারিত ভাড়ার থেকে কিছু বাড়িয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নির্ধারণ করে দেবো।’

(ঢাকাটাইমস/২২জানুয়ারি/জিএম/ডব্লিউবি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত