মায়ের চাকরি জাতীয়করণের দাবিতে শিশু সন্তানও

নড়াইল প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:৩৯ | প্রকাশিত : ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:৩৯

২০ মাস বয়সী শিশু শায়না। কখনো হেসে, কখনো কাঁদে, কখনো মায়ের চোখের আড়ালে এদিক-সেদিক হাঁটাহাটি করছে। শায়নার মতোই অস্থিরতায় আছে শিশু রহমতউল্লাহও। গত তিনদিন ধরে এভাবেই অনেক শিশু সময় পার করছে।

শনিবার থেকে সোমবার বিকাল পর্যন্ত নড়াইলে কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডারদের (সিএইচসিপি) কর্মবিরতি পালনকালে চাকরিজীবী মায়েদের সঙ্গে এসব অবুঝ শিশুদের কনকনে শীতের মধ্যে খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করতে দেখা গেছে। এ কারণে জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে আসা মায়েরা শিশু সন্তানদের নিয়ে পড়েন বিপাকে।

শায়নার মা নাদিরা পারভীন ঢাকাটাইমসকে বলেন, আমরা স্বামী-স্ত্রী দুজনেই কমিউনিটি ক্লিনিকে সিএইচসিপি পদে চাকরি করি। দুজনেই দাবি আদায়ের আন্দোলনে এসেছি। এখানে শায়নাকে গোসল, খাওয়ানোসহ সবদিক থেকে সমস্যা হচ্ছে। তবু দাবি আমাদের একটাই, চাকরি জাতীয়করণ করা হোক।

সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে ৩৩টি কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপিরা অবস্থান কর্মবিরতি পালন করেছেন। সোমবার এ কর্মসূচি শেষ হলেও মঙ্গলবার থেকে জেলা পর্যায়ে শুরু হবে।

লোহাগড়া উপজেলা সিএইচসিপি অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আলীমুল হোসেন বলেন, সরকার কমিউনিটি ক্লিনিকের জন্য ২০১১ সালে সিএইচসিপি নিয়োগ দেন। ২০১৩ সালে সিএইচসিপিদের জাতীয়করণের জন্য নীতিগতভাবে সিদ্ধান্ত হয়। ২০১৭ সালে হাইকোর্ট চাকরি জাতীয়করণের পক্ষে রায় দেন। তারপরেও তা বাস্তবায়ন হয়নি। এ কারণে সারাদেশে কর্মরত সিএইচসিপিরা তিন দিনের কর্মবিরতি পালন করেন।

(ঢাকাটাইমস/২২জানুয়ারি/প্রতিনিধি/ওয়াইএ/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত