ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে এসিডে ঝলসে দিল দুর্বৃত্ত

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, লালমনিরহাট
| আপডেট : ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ২৩:২৫ | প্রকাশিত : ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৯:৩২

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে ‘কু-প্রস্তাবে’ রাজি না হওয়ায় গৃহবধূকে এসিডে ঝলসে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন কালীগঞ্জ হাসপাতালের চিকিৎসক আহসান হাবীব বুলু।

ভুক্তভোগীর নাম শাহিদা বেগম। তিনি কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটমারী ইউনিয়নের আদর্শ পাড়া কানাইদারী গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের স্ত্রী। শাহিদার বাবার বাড়ি নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার হলদাবাড়ি গ্রামে।

ভুক্তভোগী শাহিদার বড় ভাই আজিজার রহমান জানান, তার বোনের স্বামী তোফাজ্জল হোসেন ঢাকায় শ্রমিকের কাজ করেন। স্বামী বাড়ি না থাকার সুযোগ নেয়ার চেষ্টা করে স্থানীয় কিছু যুবক।

ওই যুবকরা বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে কাঠের দরজার বাঁধন কেটে ঘরে ঢুকে। তারা শাহিদাকে আপত্তিকর প্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হলে তাকে এসিডে ঝলসে দেয়। এতে তার মুখের বেশির ভাগ ঝলসে গেছে।

শাহিদার চিৎকারে পরিবারের অন্য সদস্যরা দৌড়ে এসে তাকে উদ্ধার করে। ততক্ষণে হামলাকারীরা পালিয়ে যান।

শাহিদাকে শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে কালীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু সেখানে এসিডে ঝলসানো রোগীর চিকিৎসার ব্যবস্থা নেই। শাহিদার চিকিৎসা রার্ন ইউনিটে করাতে হবে জানিয়ে কালীগঞ্জ হাসপাতালের চিকিৎসক আহসান হাবীব বুলু তাকে ঢাকায় নিয়ে আসার পরামর্শ দেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মকবুল হোসেন বলেন, ‘আমরা থানায় অভিযোগ পেয়েছি। এটি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনার সর্বোচ্চ চেষ্টা করব আমরা।’

৯০ দশকে মেয়েদের ওপর ব্যাপক হারে এসিড নিক্ষেপের ঘটনা ঘটত। তবে এসিড বিক্রির ওপর বিধি নিষেধ আরোপ, লাইসেন্স প্রথা চালুসহ নানা উদ্যোগের সুফল মিলেছে। এসিড নিক্ষেপের হার সাম্প্রতিক বছরগুলোতে কমে এসেছে। তবে এখনও মাঝেমধ্যে এই ধরনের হামলার খবর আসে গণমাধ্যমে।

(ঢাকাটাইমস/২২জানুয়ারি/প্রতিনিধি/ওয়াইএ/ডব্লিউবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত