নৈতিক শক্তি ফাউন্ডেশনের যাত্রা শুরু

ঢাকাটাইসম ডেস্ক
| আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:০০ | প্রকাশিত : ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, ১৬:৫৪

প্রতিষ্ঠিত হয়েছে নৈতিক শক্তি ফাউন্ডেশন। এর প্রতিষ্ঠাতা আমেরিকা সিটি বিশ্ববিদ্যালয় অব নিউইয়র্কের সহকারী অধ্যাপক . হাসান আহমেদ। ১৫ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরসি মজুমদার আর্টস অডিটোরিয়ামে এক অনুষ্ঠানে নৈতিক শক্তি ফাউন্ডেশনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য তুলে ধরেন বরিশাল জেলায় জন্ম নেয়া এই শিক্ষাবিদ। যেখানে বলা হয়েছে, ‘ব্রাইব, ড্রাগ অ্যান্ড ভায়োলেন্স ফ্রি বাংলাদেশ’-এর কথা।

এই অনুষ্ঠানে ‘নৈতিক শক্তির প্রয়োজনীয়তা’ বিষয়ে মূল বক্তব্য উপস্থাপনা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের অধ্যাপক ড. গালিব আহসান খান। আয়োজনে আরো আলোচনা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের অধ্যাপক ড. আনিসুর রাহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইব্রাহিম, অধ্যাপক ড. এম সিদ্দিকুর রাহমান এবং অধ্যাপক ড. নাজমা খান মজলিস। সভাপতি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আতাউর রহমান মিয়াজী। তিনি বলেন, নৈতিক শক্তি ফাউন্ডেশনের আগামী যে কোনো কাজে সহযোগীতা করা হবে।

নৈতিক শক্তি ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ড.  হাসান আহমেদ বলেন, সমাজে আজ নৈতিকতার যে অধপতন তার থেকে উত্তরণ না হলে সমাজের যে ভয়াবহ পরিনতি হবে তা এখনই ভাবতে হবে। তিনি ঘুষ, ড্রাগ এবং ভায়োলেন্সকে রোগের সঙ্গে তুলনা করেছেন। যখন ৭-৮ বছরের শিশু ড্রাগ নেয়, স্কুল শিক্ষক ঘুষ নেন- তখন বুজতে হবে এই সমাজের কি ভয়বহ অবক্ষয় হয়েছে। তবে তিনি আশাবাদী হয়ে বলেন, ‘এখনি যদি আমরা সমাজের এই অবক্ষয়ের বিরুদ্ধে কাজ করি উত্তরণ সম্ভব।’ তার বাক্তিগত জীবনের বর্ননা দিয়ে তিনি জানান, আমেরিকাতে গিয়ে প্রথম ১০ বছর পড়াশুনা করেননি। কিন্তু তারপর যখন শুরু করেছেন তখন একটানে ১৭ বছর পড়াশুনা করে পিএইচডি শেষ করেন।

ড.  হাসান বলেন, ‘বাঙ্গালী জাতি বীরের জাতি। মেধায় আমরা অনেক এগিয়ে আছি।’ তিনি আরো জানান, ঢাকা বিশ্ববিদালয়ে পড়ার সুযোগ পাননি। তিনি কলম্বিয়া এবং কর্নেল বিশ্ববিদালয়ে সুযোগ পেয়েছিলেন। সুযোগের অভাবে অনেক মেধাবী ঝরে যাচ্ছে। তার বিশ্বাস, ক্লাস সিক্স থেকে ১২ গ্রেড পর্জন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের যদি বলা হয় যে, তোমরা ঘুষ নেবে নে,  ড্রাগ নেবে না এবং ভায়লেন্স করবে না- তাহলে এর প্রভাব তারা যখন বড় হয়ে কাজে ঢুকবে তাতে প্রতিফলিত হবে।

আগামীতে সারা দেশের স্কুল-কলেজে ফাঊন্ডেশনের কাজ ছড়িয়ে দেবেন বলে জানান নৈতিক শক্তি ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ড.  হাসান আহমেদ। তিনি আরো জানান, বর্তমানে দুটি স্কুলে এবং একটি কলেজে নৈতিক শক্তি ফাউন্ডেশনের কর্মসূচি পাইলট প্রজেক্ট হিসেবে শুরু হয়েছে।

অনুষ্ঠানে দর্শনার্থী হিসেবে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন স্তরের সুধীজনরা।

ঢাকাটাইমস/২৩ জানুয়ারি/টিএমএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত