ঢাবি শিক্ষার্থী জয় খুন হয়েছেন, ধারণা পুলিশের

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ), ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, ২২:২০ | প্রকাশিত : ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, ২২:১০

সমিতির পাওনা টাকা উঠানোকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী পারভেজ আহাম্মেদ জয়কে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নারীসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার বড়ালু এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- বড়ালু এলাকার মেঘনা সমবায় শ্রমজীবী সমিতির শারমিন আক্তার, সোহাগ মিয়া ও জাহাঙ্গীর আলম।

জয় বড়ালু এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি। এছাড়াও স্থানীয় মেঘনা সমবায় শ্রমজীবী নামের সমিতিতে তিনি চাকরি করছিলেন।

সোমবার দুপুরে বড়ালু এলাকার শীতলক্ষ্যা নদী থেকে জয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়। রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন জানান, সমিতির হিসাবকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকাণ্ড হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

জানা গেছে, ওই সমিতির মালিকানা পার্টনার ছিলেন জয়ের মামা রুবেল মিয়া। তিনি সমিতিতে প্রায় ১০ লাখ টাকা রেখেছিলেন। অন্যান্য পার্টনারদের সঙ্গে রুবেল মিয়ার কথা কাটাকাটি হলে ৪ লাখ ২০ হাজার টাকা নিয়ে সমিতি থেকে তিনি চলে যান। থেকে যায় আরও ৫ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

ওই টাকা তোলার জন্য মামা ভাগিনাকে দায়িত্ব দেন। এ ব্যাপারে বেশ কয়েকবার সমিতির কর্মকর্তাদের কাছে জয় হিসাব-নিকাশ চায়। এ নিয়ে কয়েকবার বাকবিতণ্ডাও হয়।

এদিকে, জয়ের হত্যাকারীদের খুঁজে বের করে ফাঁসির দাবি জানিয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছেন এলাকাবাসী।

ঢাকাটাইমস/২৩জানুয়ারি/ওয়াইএ/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত