ফার্মার্স ব্যাংকে টাকা রেখে বিপাকে পরিবেশ মন্ত্রণালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, ২২:৪৮ | প্রকাশিত : ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, ২২:৩৫

বেশি সুদ পাওয়া যাবে বলে মহীউদ্দিন খান আলমগীরের ফারমার্স ব্যাংকে জলবায়ু তহবিলের ৫০৮ কোটি টাকা রেখেছিল পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়। কিন্তু তারল্য সংকটে থাকা ব্যাংকটি এখন সে টাকা ফেরত দিতে পারছে না।

মঙ্গলবার সংসদে বিষয়টি জানিয়েছেন পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। তিনি জানান, বিষয়টি তারা অর্থ মন্ত্রণালয়কে জানানোর পর তারা কেন্দ্রীয় ব্যাংককেও তা জানানো হয়েছে।

আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীরের মালিকানাধীন ব্যাংকটি নিয়ে নানা অনিয়মের অভিযোগ ছিল চার বছর ধরেই। সম্প্রতি ব্যাংকের চেয়ারম্যানের পদ ছাড়েন মহীউদ্দিনসহ শীর্ষ তিন ব্যক্তি।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল ‍মুহিত বলেছেন, ব্যাংকের মালিকপক্ষই ব্যাংকটিকে লুট করেছে।

সিলেটের সংসদ সদস্য সেলিম উদ্দিনের প্রশ্নের জবাবে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ে সম্প্রতি বদলি হয়ে আসা আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, ‘সর্বোচ্চ সুদের হার প্রদান করায় ফারমার্স ব্যাংকের ঢাকার বিভিন্ন শাখায় জলবায়ু পরিবর্তন ফান্ডের মোট ৫০৮ কোটি ১৩ লাখ ২৯ হাজার টাকা এক বছর মেয়াদী স্থায়ী আমানত হিসাবে জমা রাখা হয়।’

‘তার মধ্যে ৪৫৫ কোটি ৩২ লাখ টাকা মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে, যা নগদায়নের জন্য পত্র প্রেরণ করানো হয়েছে এবং কয়েকবার তাগিদপত্র ও ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে। কিন্তু ব্যাংক থেকে জানানো হয়েছে যে, ব্যাংকের তারল্য সঙ্কটের কারণে এফডিআরসমূহ নগদায়ন করা যাচ্ছে না।’

ফার্মার্স ব্যাংক নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই আলোচনা চলছে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এই ব্যাংকে টাকা রেখে ফেরত পাচ্ছে না।

আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে ২০১৩ সালে ফারমার্স ব্যাংক অনুমোদন পায়।

ঢাকাটাইমস/২৩জানুয়ারি/এসও/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত