না.গঞ্জে ‘অপহৃত’ শিশুর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:৪৭

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে রোকসানা আক্তার নামে তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাকে অপহরণ করা হয়েছিল বলে দাবি পরিবারের।

আজ শুক্রবার সোনারগাঁয়ের কাইকারটেক এলাকা থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। খবর পেয়ে শিশুটির স্বজনরা মরদেহ শনাক্ত করেন।

শিশুটির পরিবার জানায়, গত ২৩ জানুয়ারি সকালে বাসা থেকে স্কুলে গেলে আর বাসায় ফিরেনি রোকসানা। এলাকায় মাইকিং করাসহ নানাভাবে খোঁজাখুঁজি করে পাওয়া যায়নি। খোঁজ না পেয়ে ২৪ জানুয়ারি দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় জিডি করেন শিশুটির বাবা আশরাফুল ইসলাম। পরে  রোকসানার বাবা আশরাফুলের মোবাইলে ফোন করে ৬ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন তার অপহরণকারীরা। এতে তারা রাজি হলে শিশুটিকে উদ্ধার করতে অপহরণকারীদের মোবাইল নম্বরটি পুলিশকে দেয়া হয়। পরে পরিবারের সদস্যরা অপহরণকারীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি। ঘটনার চারদিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ তাকে উদ্ধারে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ করেন তারা।

সোনারগাঁও থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোর্শেদ আলম জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে কাইকারটেক ব্রিজ ঢাল থেকে শুক্রবার সকালে বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়। তার হাত-পা দড়ি দিয়ে বাঁধা ছিল। তার শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। দুপুরে লাশ উদ্ধারের পর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হলে শিশুটির পরিবার তার লাশ শনাক্ত করে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক তদন্ত মামুন আল আবেদ জানান, মেয়েটিকে উদ্ধার করতে তারা বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়েও উদ্ধার করতে পারেননি।

এদিকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুস সাত্তার গাফিলতির অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, জিডির পর আমরা তদন্ত করেছি। কললিস্ট ধরে চেষ্টা করেছি। আমাদের কোনো গাফিলতি ছিল না।

নিহত রোকসানা নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইল আরামবাগ এলাকায় পরিবারের সঙ্গে বাস করত। সে গোদনাইল সরকারি প্রাথমিক স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী।

(ঢাকাটাইমস/২৬ জানুয়ারি/ওআর/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত