‘আমরা অন্যের কাছ থেকে ভিক্ষা নেই না, দেই’

ফরিদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২২:৩২ | প্রকাশিত : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২১:১২

স্থানীয় সরকার, পল্লি উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা উন্নয়নের রোল মডেল। তার কারণেই আমরা অন্যের কাছ থেকে ভিক্ষা নেই না, ভিক্ষা দেই।

আজ শনিবার বিকালে ফরিদপুরে শহরের কবি জসীম উদ্দীন হলে আওয়ামী লীগের কর্মীসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে এ কথা বলেন মন্ত্রী।

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দলের সাংগঠনিক ভিত্তি মজবুত করার লক্ষে এ সমাবেশের আয়োজন করে জেলা আ.লীগ।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, শেখ হাসিনা উন্নয়নের রোল মডেল। তিনিই বিশ্বের একমাত্র নেত্রী যিনি ঘোষণা দিয়ে দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করার উদ্যোগ নিয়েছেন। এর জন্য ২০২১ সাল লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছিল। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে তার অনেক আগেই আমরা এ দেশকে মধ্যম আয়ের দেশের তালিকায় নিয়ে যেতে পারবো। শেখ হাসিনরা জন্যই আজ আমরা অন্যের কাছ থেকে ভিক্ষা নেই না বরং দেই।

এসময় বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আ.লীগকে আন্দোলনের ভয় দেখিয়ে কোন লাভ নেই। কেননা আ.লীগের জন্মই হয়েছে আন্দোলনের মধ্যে।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আ.লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী বলেন, আ.লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয় এবং আ.লীগ ক্ষমতার বাইরে থাকলে দেশ পিছিয়ে পরে।
তাই আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনার সরকারকে পুনরায় ক্ষমতায় আনার আহ্বান জানান তিনি।
 
অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সভাপতিম-লীর সদস্য লে. কর্নেল (অব) মুহাম্মদ ফারুখ খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপু মনি ও আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক কে এম এনামুল হক, বি এম মোজাম্মেল হক, বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান, নির্বাহী সদস্য আনোয়ার হোসেন ও ইকবাল হোসেন প্রমুখ।

সভায় ফরিদপুরের নয়টি উপজেলার প্রতিনিধিরাও বক্তব্য দেন। এসময় অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি আরিফুর রহমান দোলন, শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পদক চৌধুরী বরকত ইবনে সালাম, জেলা যুবলীগের এ এইচ এম ফুয়াদ, ছাত্রলীগের নিশান মাহমুদ শামিম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, বিগত নয় বছরে বর্তমান সরকার যে পরিমাণ উন্নয়ন করেছে তা নজিরবিহীন। অথচ সঠিক প্রচারণার অভাবে দেশের সাধারণ মানুষ এসব তথ্য ঠিকমত জানতে পারছে না। তাই আমাদের উচিত হবে এ যুগান্তকারী উন্নয়নের খবর মানুষের দ্বারে দ্বারে পৌঁছে দেওয়া।

বক্তারা আরও বলেন, আজ এ সত্য আদালতে প্রমাণ হয়েছে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং তার পরিবারের সদস্যরার দুর্নীতিগ্রস্ত। দেশের সম্পদ লুট করে তারা নিজেদের আখের গুছিয়েছেন। পাশাপাশি এ সত্যও প্রমাণিত হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ও বিদেশে স্বচ্ছতার একটি জ্বলন্ত উদাহরণ।

বক্তারা বলেন, আমাদের একতাবদ্ধভাবে চলতে হবে। কোনো অবস্থাতেই দলের মধ্যে ফাটল ধরানো যাবে না। তৃণমূল নেতাকর্মীদের সাথে খারাপ আচরণ করা যাবে না। তাদের মতামতের গুরত্ব দিতে হবে। তারা দলে চাকরি করে না, ভালোবেসে দল করে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আ.লীগের সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহা এবং উপস্থাপনা করেন জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেন।

(ঢাকাটাইমস/১৭ফেব্রুয়ারি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত