ছিনতাইকারী ধরতে রাজধানীতে পুলিশের ‘ফাঁদ’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২২:৫২ | প্রকাশিত : ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৯:৫৭
প্রতীকী ছবি

রাজধানী ঢাকায় ছিনতাইয়ের সমস্যা পুরোনো। ছিনতাইকারীদের কবলে পড়ে প্রাণ হারানোর ঘটনাও প্রায়ই ঘটে। এবার ছিনতাইকারীদের ধরতে নানা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এর মধ্যে রয়েছে পুলিশের বিশেষ ‘ফাঁদ’।

রবিবার সংসদে সরকারি দলের সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানিয়েছেন এই তথ্য।

মন্ত্রী জানান, ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় ছিনতাই প্রতিরোধ ও জনসাধারণের নিরবচ্ছিন্ন চলাচল নিশ্চিত করতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

কী কী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে এর ব্যাখ্যা দিয়ে মন্ত্রী বলেন, ছিনতাইসংক্রান্ত অপরাধসমূহের মামলা রুজু করে আসামিদের গ্রেপ্তার (জিজ্ঞাসাবাদ করে মূল গ্রুপকে) এবং আইনের আওতায় আনার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, ছিনতাইকারী ধরতে ফাঁদ পাতা পদ্ধতি অবলম্বন করা হচ্ছে। ছিনতাইয়ের সম্ভাব্য সময় সন্ধ্যা ও ভোররাতে পুলিশ সদস্যদের সিভিল পোশাকে সতর্কতার সঙ্গে মূল্যবান দ্রব্য সামগ্রী (ল্যাপটপ, ক্যামেরা, দামি মোবাইল ফোন) দিয়ে রিকশায় ঘোরাঘুরি করে ছিনতাইকারীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় গুরুত্বপূর্ণ স্থান, বাসস্ট্যান্ড ও যাত্রীসাধারণের চলাচলের স্থানে পুলিশি টহল ব্যবস্থা বৃদ্ধি করা হয়েছে।

আসাদুজ্জামান বলেন, ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় পুলিশি টহল জোরদার এবং গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ও রাস্তায় পুলিশি চেকিংয়ের ব্যবস্থা করাসহ সন্দেহভাজন মোটর সাইকেল, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস ও সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের তল্লাশি করা হচ্ছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় ছিনতাই প্রতিরোধে প্রতিটি বিটে উঠান বৈঠকের মাধ্যমে পুলিশের পাশাপাশি কমিউনিটি পুলিশ, বিট পুলিশিং, উঠান বৈঠক ও নাগরিক কমিটির সমন্বয়ে জনসচেতনামূলক প্রচারণা চালানো হচ্ছে।

তিনি বলেন, চোরাই মালামাল ক্রয়-বিক্রয়ের স্থান চিহ্নিত করাসহ ছিনতাইকারী আটকের জন্য গোয়েন্দা নিয়োজিত করা হয়েছে। প্রতিটি বিটে দায়িত্বরত অফিসারগণকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে বিভিন্ন নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জনসাধারণের তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশের সহায়তায়সহ অ্যাম্বুলেন্স ও ফায়ার সার্ভিসের সেবা প্রাপ্তির লক্ষ্যে ‘জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯’ এর কার্যক্রম চালু করা হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, এছাড়া ছিনতাইসহ যেকোনো ধরনের অপরাধ প্রতিহত করে জনসাধারণের নিরবচ্ছিন্ন যাতায়াত নিশ্চিত করার জন্য ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সব সদস্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

(ঢাকাটাইমস/১৮ফেব্রুয়ারি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত