‘বাংলাদেশ ক্রিকেট এখন মাঠের বাইরে’

লিয়াকত আলী ভূঁইয়া
| আপডেট : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৮:৪৬ | প্রকাশিত : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৭:২৯

বাংলাদেশ ক্রিকেটের কঠিন সময় চলছে। দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে যে হতাশা শুরু হয়েছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দেশের মাটিতেই সেই হতাশা চূড়ান্ত রূপ নিয়েছে।২২ গজে টাইগারদের আগের সেই পারফরম্যান্স নেই। চারদিকে হতাশা। বাংলাদেশ ক্রিকেট এখন কার্যত মাঠের বাইরে।

অবশ্য একদিক দিয়ে ভালোই হযেছে, দেশের মাটিতেই শুধু বাংলাদেশ ভালো খেলে- এই অপবাদ এখন আর কেউ দিতে পারবে না। কারণ বাংলাদেশ দেশের মাটিতে দুর্বল শ্রীলঙ্কার কাছে দারুণভাবে মার খেয়েছে। অথচ এই বাংলাদেশই গত বছর শ্রীলঙ্কার মাটি থেকে ম্যাচ জিতে এসেছিল।

আসলে বাংলাদেশের সেরা দিনে যে কোনো মাঠে যে কোনো দলকে হারাতে পারে। এখন বড্ড খারাপ সময়, তাই দেশে বা দেশের বাইরে কোথায় ভালো করতে পারছে না। একটা কথা হলো, দেশের মাটিতে সব দলই তুলনামূলক শক্তিশালী। বাংলাদেশও ব্যতিক্রম নয়। তবে বড় দলের বিপক্ষে দেশে নয়, দেশের বাইরেই প্রথম জয় পেয়েছিল টাইগাররা।

পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, ভারত-এ দলগুলোকে প্রথম দেশেরই বাইরেই হারিয়েছিল বাংলাদেশ। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের শেষ আটে যে খেলেছিল মাশরাফিরা, সেটাও ছিল দেশের বাইরে। গত বছর ইংল্যান্ডের মাটিতে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শেষ চারে ওঠে বাংলাদেশ। এ কারণে দেশের মাটিতে শুধু ভালো খেলে- এ অপবাদ দেওয়ার সুযোগ নেই।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টানা হার অবশ্যই হতাশার। কিন্তু এই ফল বাংলাদেশ ক্রিকেটকে শেষ করে দেয়নি। ক্রিকেট আসলে এমনই। দক্ষিণ আফ্রিকার কথা চিন্তা করুন। দেশের মাটিতে ভারতের কাছে কীভাবে হেরে যাচ্ছে তারা। তাই বলে দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেট মাটিতে পড়ে যায়নি। ক্রিকেটে এটা হতেই পারে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারের হতাশা থেকে ঠিকই একসময় ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ। এই হারের জন্য মাঠের পারফরম্যান্স অবশ্যই বড় কারণ। তবে উইকেট নিয়ে নেতিবাচক খবর ছড়ানো হয়েছে, সেটাও ঠিক নয়। চট্টগ্রামের উইকেট ব্যাটিং সহায়ক। স্পোর্টিং নয়- এই অভিযোগ তুলেছেন কমেন্টেটররা। যেটা বাংলাদেশের ক্ষতিকারক হয়েছে। এতে করে চট্টগ্রামের ভেন্যু নিয়ে আইসিসি প্রশ্ন তুলার উপলক্ষ পেয়েছে। বোলারদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। যার প্রভাব পড়েছে খেলাতে। অন্যদিকে ঢাকার উইকেট তৈরিতেও ওই সমালোচনা প্রভাব ফেলেছে।

ঢাকাতে ব্যাটিং উইকেট হলে বাংলাদেশকে হয়তো হারতে হতো না। কিন্তু চারদিকের চাপেই ঢাকাতে স্পিন বোলিং উইকেট তৈরি করা হয়। আর যেটা স্বাগতিকদের জন্য হিতকর হয়ে দাঁড়ায়।
সামনে শ্রীলঙ্কা সফর। আশা করি, ওই সফরে ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ।দেশের বাইরেও যে টাইগাররা ভালো খেলে, তার প্রমাণ দিবে।

লিয়াকত আলী ভূঁইয়া : প্রথম সহ-সভাপতি, রিহ্যাব

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত