‘কাউয়ায় করে কা কা, দলের বাজে ১২টা’

নিজস্ব প্রতিবেদক, টাঙ্গাইল
| আপডেট : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১১:০৭ | প্রকাশিত : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৮:২৮

‘কাউয়া মুক্ত’ আওয়ামী লীগের দাবিতে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার বিভিন্ন স্কুল-কলেজসহ বিভিন্ন দেয়ালে সাঁটানো হয়েছে পোস্টার। সুনির্দিষ্ট কারও নাম উল্লেখ না করে পোস্টারগুলোর প্রচারণায় লেখা রয়েছে তৃণমূল আওয়ামী লীগের কথা।

পোস্টারগুলোতে লেখা রয়েছে 'কাউয়া মুক্ত টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন চাই', ‘কাউয়া করে কা কা দলের বাজে ১২ টা'। ডানপাশে শোভা পাচ্ছে বড় আকারের একটি দাঁড় কাকের ছবি। পোস্টারগুলো জনগণের মধ্যে কৌতুহলের সৃষ্টি করেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে পোস্টারগুলো দেখা গেছে। কখন কোন সময়ে কারা এই পোস্টার সাঁটিয়েছেন তার ধারণা দিতে পারেননি কেউ।

আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে ‘কাউয়া’ শব্দটি জনপ্রিয় করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। গত বছরের মার্চে সিলেটে বিভাগীয় তৃণমূল সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ মন্তব্য করেন যে, সংগঠনে, ‘কাউয়া’ (কাক) ঢুকছে।

কাদের সেদিন বলেন, ‘প্রচার লীগ, তরুণ লীগ, কর্মজীবী লীগ, ডিজিটাল লীগ, হাইব্রিড লীগ আছে। কথা হাছা, সংগঠনে কাউয়া ঢুকছে। জায়গায় জায়গায় কাউয়া আছে। পেশাহীন পেশাজীবী দরকার নেই। ঘরের ভেতর ঘর বানানো চলবে না। মশারির ভেতর মশারি টানানো চলবে না।’

সম্প্রতি রাজধানীর ধানমন্ডির ২৭ সড়কের শংকর আবাসিক এলাকার বিক্রমপুর মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের সামনে ৩০ ফুটেরও বেশি দৈর্ঘ্যর বিলবোর্ডটি সাঁটানো হয় সেখানেও কাউয়া প্রসঙ্গটি তোলা হয়। এতে লেখা ছিল ‘দাঁড় কাউয়া মুক্ত মোহাম্মপুর থানা আওয়ামী লীগ চাই’। তবে সে বিলবোর্ডটি কে টানিয়েছে সেটাও জানা যায়নি।

ভূঞাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও পৌর মেয়র মাসুদুল হক মাসুদ বিষয়টি শুনেননি বলে দাবি করেন।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জোয়াহেরুল ইসলাম ভিপি জোয়াহেরও একই দাবি করেন। তিনি বলেন, যা দেখিনি তা নিয়ে কি মন্তব্য করব।

ঢাকাটাইমস/২২ফেব্রুয়ারি/প্রতিনিধি/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত