মেলায় বিক্রির শীর্ষে ‘শাওনের বয়ানে হুমায়ূন’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:২৪ | প্রকাশিত : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২৩:৫২

শুক্রবার ছুটির দিন থাকায় অমর একুশে বই মেলায় ক্রেতা ও দর্শকদের প্রচণ্ড ভিড়। হাঁটাই যেন দায়! প্রতিটি প্যাভিলিয়ন ও স্টলের সামনে মানুষের জটলা। এরমধ্যে মেলার অবসর প্রকাশনীর প্যাভিলিয়নের সামনে জটলা পাকিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন বেশ কজন তরুণ-তরুণী। তারা যে নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ভক্ত তা জানা গেল হাতে ধরা বই দেখে। প্যাভিলিয়নের সামনে দাঁড়িয়ে বইয়ের ভেতরে পৃষ্ঠা উল্টিয়ে একজন বললেন, দেখ দোস্ত হুমায়ূন স্যারের হাতে লেখা চিঠি! কয়েকটি পৃষ্ঠায় নজর বুলিয়ে তাদের তিনজন তিনটি বই কিনে নিলেন। বেশ কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে দেখা গেল, ভিড় ঠেলে দুজন ভদ্র মহিলা এগিয়ে এলেন। বললেন, শাওনের একটা বই আসছে না মেলায়, হুমায়ূনকে নিয়ে লিখেছে, কি যেন নামটা! ওইটা দেন। প্যাভিলিয়নের দায়িত্বে থাকা এক যুবক দুটো বই প্যাকেট করে দিলেন।

হুমায়ূন আহমেদের যাপিত জীবনের নানান ঘটনা, অপ্রকাশিত চিঠি, চিরকুট, ফটোগ্রাফ ও বিরল লেখাপত্রসহ মেহের আফরোজ শাওনের খোলামেলা সাক্ষাৎকার নিয়ে লেখা হয়েছে বইটি। লিখেছেন কবি শোয়েব সর্বনাম।

হুমায়ূন আহমেদের শৈশব, কৈশর, ছেলেবেলা, আমেরিকার জীবন সম্পর্কে তিনি নিজেই লিখে গেছেন। এমনকি গুলতেকিন সম্পর্কেও লিখতে বাদ রাখেননি কিছু। তবে শাওন আর হুমায়ূনের রহস্য একটু অপ্রকাশিতই রয়ে গেছে, যেখানে সাধারণ মানুষের আগ্রহ প্রচুর। এ বইটিতে মূলত সে রহস্য উন্মোচনের চেষ্টা করা হয়েছে। আছে হুমায়ূন আহমেদের অনান্য নানান বিষয়ও।

কিশোরী শাওনের সঙ্গে হুমায়ূনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠা, সে সময় কী ধরনের পারিবারিক বাধার সম্মুখীন হয়েছিলেন, বাধা কাটিয়ে কিভাবে বিয়ে করলেন, তা তুলে ধরা হয়েছে। বইটি পড়লে আরও জানা যাবে,  হুমায়ূন কিভাবে যোগাযোগ করতেন শাওনের সঙ্গে। এছাড়াও, হুমায়ূন ইস্ত্রি করা ফুলহাতা জামা ছাড়া ঘুমুতে পারতেন না, কিংবা চায়ের কাপে এক চুমুক দিয়ে তাতে সিগারেট ডুবিয়ে দেয়ার মতো ঘটনাসহ নানা বিষয় রয়েছে।

মাসুমা রহমান আভা নামে একজন বলেন, নানান ব্যস্ততার কারণে যানজট ঠেলে এবারের মেলায় যাওয়া হচ্ছিল না। শুধুমাত্র এই বইটার জন্য মেলায় এসেছি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফরিদ, তাহসান, অমিয়, ফাহরিন ও পুস্পিতা প্রতিদিন বইমেলাকেই আড্ডা দিতে আসেন। আজকে এসেছেন বই কিনতে। তবে 'শাওনের বয়ানে হুমায়ূন' বইটির একটি কপি তারা ২১শে ফেব্রুয়ারিতেই সংগ্রহ করেছেন। শেয়ার করে পড়ছেন।

ফারিহা করিম। পেশায় একজন বিমানবালা। ঢাকাটাইমসকে বলেন, হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যুর পর এই বছর তিনি প্রথম মেলায় আসলেন। তিনি বলেন, হুমায়ূন আহমেদের হাতে লেখা চিঠি ও চিরকুটের আগ্রহে তিনি মেলায় ছুটে এসেছেন।

শাওনের বয়ানে হুমায়ূন বইটির বিক্রি নিয়ে খুশি প্রকাশক আলমগীর রহমানও। তিনি বলেন, এই মেলায় এটাই আমার প্রকাশনীর বেস্ট সেলার।

এ ব্যাপারে শাওন বলেন, এই বইটিতে হুমায়ূন আহমেদেকে নিয়ে একম কিছু কথা বলেছি, যা হয়তো কখনোই বলা হতো না।

লেখক শোয়েব সর্বনাম ঢাকাটাইমসকে বলেন, পাঠকরা যেভাবে গ্রহণ করেছে, লেখক হিসেবে ডেফিনেটলি আমি আনন্দিত। পাঠকদের প্রতিক্রিয়া জানতে পারলে আরও ভালো লাগবে।

এ বইয়ের দাম রাখা হয়েছে ২৫০ টাকা। মেলায় অবসর প্রকাশনীর ১৪ নং প্যাভিলিয়ন থেকে বইটি সংগ্রহ করা যাবে।

ঢাকাটাইমস/২৩ফেব্রুয়ারি/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত