শোকে স্তম্ভিত বলিউড

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১০:৫৩

শনিবার দুবাইয়ে পারিবারিক একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে রাত ১১টার দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান বলিউডের প্রথম নারী সুপারস্টার নায়িকা শ্রীদেবী। মৃত্যুর সময় তার বয়স হয়েছিল ৫৪ বছর। তামিল ছবির মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করলেও খুব অল্প সময়েই তিনি বলিউডের প্রভাবশালী অভিনেত্রী হয়ে ওঠেন।

এই নায়িকার হঠাৎ মৃত্যুকে শোকে স্তম্ভিত হয়ে পড়েছে গোটা বলিউড। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভরে গেছে শোক বার্তায়। নায়িকার আকস্মিক মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির প্রথমসারির অভিনেতা-অভিনেত্রীরা।

বলিউড শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চন। তিনি ছোট্ট করে লিখেছেন, ‘জানি না কেন এত অসহায় লাগছে।’

প্রিয়াংকা চোপড়া- ‘আমার বলার কোনো ভাষা নেই। শ্রীদেবীকে যারা ভালোবাসতেন তাদের সবার জন্য সমবেদনা। এটা একটা কালো দিন।’

প্রীতি জিনতা- ‘আমার সব সময়ের ফেবারিট শ্রীদেবী নেই শুনে আমি শকড। উনার আত্মার শান্তি কামনা করছি। উনার পরিবার শক্তি পাক।’

বোমান ইরানি- ‘খুবই দুঃখ পেয়েছি খবরটা শুনে। আমাদের শ্রীদেবীজি আর নেই। বনি এবং ওঁর পরিবারের প্রতি সমবেদনা।’

নেহা ধুপিয়া- ‘শ্রীদেবী ম্যাম নেই! আমরা আমাদের সবচেয়ে সুক্ষ্ম অভিনেত্রীকে হারালাম।’

জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ- ‘শ্রীদেবী, আমরা একজন কিংবদন্তীকে এত তাড়াতাড়ি হারালাম!’

সিদ্ধার্থ মালহোত্রা- ‘শ্রীদেবী ম্যাম নেই শুনে সত্যিই শকড।’

আদনান সামি- ‘শেষরাতে শ্রীদেবীর খবরটা শুনে আমি আর কথা বলার অবস্থায় নেই। অসাধারণ প্রতিভা। তাঁর আত্মা শান্তি লাভ করুক।’

সুস্মতা সেন- ‘শুনলাম শ্রীদেবী ম্যাম চলে গেছেন। আমি কান্না থামাতে পারছি না।’

রাবিনা ট্যান্ডন- ‘খুবই দুঃখের একটা খবরে ঘুম ভাঙল। কেন এমন হল? এত তাড়াতাড়ি চলে গেল শ্রী!’

১৯৬৭ সালে মাত্র ৪ বছর বয়সে অভিনয়ে আসা সদ্য প্রয়াত শ্রীদেবীর শেষ ছবি ছিল ‘ইংলিশ ভিংলিশ’। ২০১২ সালে মুক্তি পেয়েছিল ছবিটি। দীর্ঘ জীবনের অভিনয় কারিশমায় তিনি ভারতের একশ বছরের সেরা অভিনেত্রীর খেতাব অর্জন করেছিলেন। ২০১৩ সালে ভারত সরকারের কাছ থেকে পেয়েছিলেন ‘পদ্মশ্রী’ খেতাবও। কিন্তু শনিবার রাতে হঠাৎই সবকিছু ছেড়ে চলে গেলেন নায়িকা।

ঢাকাটাইমস/২৫ফেব্রুয়ারি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত