রংপুর সিটির সাবেক মেয়র ঝন্টু আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২৩:৫০ | প্রকাশিত : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৬:০৭

রংপুর সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু আর নেই। রবিবার বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

মৃত্যুকালে ঝন্টুর বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। তিনি এক ছেলে স্ত্রীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাঁর মৃত্যুতে রংপুরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

গত ৩১ জানুয়ারি মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হলে সাবেক মেয়র ঝন্টুকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে ঢাকার ল্যাব এইড হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে তাকে নেয়া হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে। হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন রংপুর মহানগরীর প্রথম মেয়র।

জানা গেছে, জাতীয় সংসদ ভবনে সাবেক রসিক মেয়র ঝন্টুর প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। সেখান থেকে মরদেহ রংপুরে আনার পর দ্বিতীয় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে। তবে এসব জানাজা কখন অনুষ্ঠিত হবে তা জানা যায়নি।

বর্নাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের অধিকারী ঝন্টু ১৯৫২ সালের ৭ জুলাই জন্মগ্রহণ করেন। ১৯ বছর বয়সে তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধে সরাসরি অংশ নেন। দেশ স্বাধীনের পর তিনি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত না থাকলেও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিয়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেন।

১৯৮৭ সালে উপজেলা চেয়ারম্যান, ১৯৯২ সালে রংপুর পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হন। ১৯৯০ সালে সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ মুক্তি আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। মূলত তার নেতৃত্বেই এরশাদ মুক্তি আন্দোলন রংপুর অঞ্চলে ব্যাপক ভূমিকা রাখে।

১৯৯৬ সালে জাতীয় পার্টি থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন ঝন্টু। এরপর জাতীয় পার্টি ত্যাগ করে আওয়ামী লীগে যোগ দেন। এ সময় তাকে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির সদস্য করা হয়। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য ছিলেন।

২০১২ সালের ২০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রথম মেয়র নির্বাচিত হন সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু।

২০১৭ সালের সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হন তিনি।

এদিকে ঝন্টুর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন রংপুর সিটির নবনির্বাচিত মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। এছাড়া জেলা ও নগর আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনও শোক জানিয়েছে।

ঢাকাটাইমস/২৫ফেব্রুয়ারি/আরআর/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত