এত কম সময়ে জামিন হয় না: দুদক আইনজীবী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২০:২১ | প্রকাশিত : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২০:১৯

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড পাওয়া বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দুই মাস পাঁচ দিন কারাগারে আছেন জানিয়ে ‘এত কম সময়ে’ তার জামিনের বিরোধিতা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার দণ্ডে ১৭ দিন পর রবিবার হাইকোর্টে বিচারপতি ইনায়েতুর রহিম এবং সহিদুল করিমের বেঞ্চে জামিন আবেদনের শুনানি হয়। বিচারকরা কোনো আদেশ না দিয়ে নিম্ন আদালতের নথি পাওয়ার সিদ্ধান্ত জানানোর কথা বলেন।

দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান বলেন, ‘উনার (খালেদা জিয়া) কারাবন্দি থাকার সময় দুই মাস পাঁচ দিন। এই স্বল্প সময়ে জেলা থাকার পরও তারা জামিন চেয়েছেন। আমরা নজির দেখিয়েছি স্বল্প সময়ে জামিন দেয়া যায় না।’

গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়া কারাগারে যান। এই ১৭ দিন ছাড়াও ২০০৮ সালের ৩ জুলাই মামলার সময় সাবজেলে আটক বিএনপি নেত্রীকে এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। তখন ১৭ জুলাই থেকে ২৬ আগস্ট পর্যন্ত এক মাস ৯ দিন খালেদা জিয়া সেখানে আটক ছিলেন। এই সময়টুকু কারাভোগ হিসেবে গণ্য হবে।

খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের বক্তব্যের কথা তুলে ধরে দুদকের আইনজীবী বলেন, ‘উনারা কোনো নজির দেখিয়েছেন বলে আমার মনে নাই। উনারা যে পয়েন্টে কথা বলেছেন আমি সেই পয়েন্টেই রিপ্লাই দিয়েছি। দুদক চেয়েছে যাতে উনার জামিন না হয়।’

খুরশিদ আলম খান বলেন, খালেদা জিয়ার আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী দুইটি যুক্তিতে জামিন চেয়েছেন। একটা হলো, অল্প সময়ের সাজা ও তার স্বাস্থ্যগত অবস্থা।

‘আদালতে আমার বক্তব্য ছিল, আমাদের আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি শাহবুদ্দীন আহমেদের একটি রায় আছে, সেখানে উনি হাইকোর্টকে বলেছেন, শর্ট প্রিউড অব সেন্টেন্ট দিয়েছে। তুমি বেল না দিয়ে আপিল নিষ্পত্তি করে ফেল। যদি দেখা যায় তুমি আপিল শুনানি করতে পারতেছ না, তখন তুমি বেল কনসিডার কর। যদি তারা আবার বেল অ্যাপলিকেশন দেয়।’

‘উনারা স্বাস্থ্যগত বিষয়ে জামিন চেয়েছেন। ওখানে উনারা বয়সের কথাটা লেখেছেন, আমরা সেটার বিরোধিতা করিনি। তার ৭৩ বছর বয়স। কিন্তু যেসব রোগের কথা বলেছেন, সে বিষয়ে কোনো কাগজপত্র তিনি (এ জে মোহাম্মদ আলী) দেননি।’

বিচারিক আদালতের নথি হাইকোর্টে আসতে কত দিন লাগতে পারে জানতে- চাইলে দুদকের আইনজীবী বলেন, ‘আদালতের আদেশেই আছে ১৫ দিনের মধ্যে।’

(ঢাকাটাইমস/২৫ফেব্রুয়ারি/এমএবি/ডব্লিউবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত