বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা কাপে চ্যাম্পিয়ন “এসএম জায়ান্ট”

ঢাবি প্রতিনিধি
| আপডেট : ১৮ মার্চ ২০১৮, ১৫:০৩ | প্রকাশিত : ১৮ মার্চ ২০১৮, ১৩:০৮

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম (এসএম) হল শাখা ছাত্রলীগ আয়োজিত বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা কাপ রাত্রিকালীন শটপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে “এসএম জায়ান্ট”।প্রতিপক্ষ শেখ রাসেলের বিপক্ষে দুই উইকেটে জয় পায় জায়ান্ট।

শনিবার রাত এগারটায় শুরু হওয়া এই ম্যাচে নির্ধারিত ১৫ ওভারে শেখ রাসেলের দেয়া ১৬৭ রানের জবাবে খেলতে নেমে ১৪ ওভার দুই বলেই জয়ের বন্দরে পৌছে যায় জায়ান্ট।

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী দিনের প্রথম ম্যাচেও মুখোমুখি হয়েছিল এই দুটি দল। ওই ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে এসএম জায়ান্ট দল ৯৭ রানের লক্ষ্যে ছুঁড়ে দেয় শেখ রাসেলকে। জবাবে ব্যাট হাতে ৬৫ রানে অলআউট হয়ে যায় শেখ রাসেল। এসএম জায়ান্ট এই টুর্নামেন্টে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়। বঙ্গবন্ধুর নামে দেওয়া এই শটপিচ টুর্নামেন্টে ম্যান অব দা টুর্নামেন্ট হন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইস্টটিটিউটের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মিসবাহ।

এসএম হল ছাত্রলীগ আয়োজিত এ টুর্নামেন্টে অংশ নেয়া মোট ১৬টি দল থেকে দুই পর্বে বাছাইয়ের মাধ্যমে পয়েন্টের ভিত্তিতে সেরা দুটি দল মুখোমুখি হয় ফাইনালে।  

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তাহাসান আহমেদ রাসেল, সাধারণ মেহেদী হাসান তাপসসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলের ছাত্রলীগের নেতারা। আরও উপস্থিত ছিলেন টুর্নামেন্ট আয়োজন কমিটির আহ্বায়ক ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উপ-কৃষি শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আসিফ উদ্দিন, আয়োজন কমিটির সদস্য ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক নাহিদ হাসান সুজন, আয়োজক কমিটির সদস্য ও এসএম হল ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মোজাহিদুল ইসলাম। 

এসএম হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মাহাবুবুল আলম জোয়ার্দার বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফাইনাল ম্যাচের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

অনুষ্ঠানে হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান তাপস বলেন, “ছাত্রলীগ তরুণ সমাজকে মাদকের করাল গ্রাস থেকে মুক্ত করে একটি সুস্থ সুন্দর সমাজ বির্নিমানে বদ্ধপরিকর। আর এই লক্ষকে সামনে রেখে এসএম হল শাখা ছাত্রলীগ এই খেলার আয়োজন করেছে। কারণ একমাত্র বিনোদনই পারে তরুণকে মাদকের ভয়াল থাবা থেকে মুক্ত করতে”। 

শুধু মাদক নয়, তাপস মনে করেন, যদি একজন শিক্ষার্থী নিজেকে পড়ালেখার পাশাপাশি খেলাধুলায় নিয়োজিত রাখেন, তাহলে সে সকল ধরনের খারাপ কাজ থেকে নিজেকে মুক্ত রাখতে পারবে।

হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, “খেলার মাঠে বৈশ্য ও শুদ্রের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই । নেই কোনো সিনিয়র- জুনিয়র, অর্থাৎ সবাই সমান। দেশের প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে সবার জন্য এমনই সমতার স্বপ্ন দেখেছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান”। তাই শুধু খেলার মাঠে নয়, জাতির জনকের এই স্বপ্নকে দেশের প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে বাস্তবায়নের জন্য ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দরা অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে।”

সভাপতি তাহাসান আহমেদ রাসেল বলেন, “মাদকের পাশাপাশি যে সমস্যাটি বর্তমান সময়ে প্রকট আকার ধারণ করেছে তা হচ্ছে জঙ্গিবাদ। কিছু কুচক্রি মহল যারা বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চায়, ধর্মের নামে, গণতন্ত্রের দোহাই দিয়ে সহিংসতা করে মানুষ পোড়ায়, তাদের দ্বারা প্ররোচিত হয়ে একদল তরুণ ভুল পথে পা বাড়াচ্ছে। ছাত্রলীগের লক্ষ্যে হল বিনোদনের মাধ্যমে এইসব তরুণদের সঠিক পথে পরিচালিত করা।”

ভবিষ্যৎে এই আয়োজনের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার পাশাপাশি আরও বড় পরিসরে যাতে করা যায় সেজন্য এসএম হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মাহাবুবুল আলম জোয়ার্দারের সহযোগিতা কামনা করেন ছাত্রলীগের এই নেতা। 

তাহাসান আরও বলেন, আমাদের মূল লক্ষ্যে জাতির পিতার আর্দশে তরুণ সমাজকে উজ্জীবিত করা।

ঢাকাটাইমস/১৮মার্চ/প্রতিনিধি/এইচএ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত