‘জয় বাংলা’ স্লোগান দেয়ায় ছাত্রকে শিক্ষকের পিটুনি

ভোলা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ মার্চ ২০১৮, ১৯:১৩ | প্রকাশিত : ১৮ মার্চ ২০১৮, ১৮:৫৯
প্রতীকী ছবি

মুক্তিযুদ্ধের রণধ্বনী ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’, স্লোগান দেওয়ায় ভোলা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে পিটুনি দেয়ার অভিযোগ উঠছে স্কুলের শারীরিক শিক্ষার শিক্ষক মমিন মুন্সীর বিরুদ্ধে। এই ঘটনার প্রতিবাদে শিক্ষাথীরা ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করে।

শিক্ষার্থীরা জানায়, শনিবার সকালে ভোলা জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর ৯৮ তম জন্ম বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবসের শোভাযাত্রায় তারাও অংশ নিয়েছিল। এ সময় অষ্টম শ্রেণির ছাত্র অশিক মাহমুদসহ কয়েকজন ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগান দেয়। এ সময় শিক্ষক মমিন মুন্সী সেখানেই আশিককে মারধর করেন। এমনকি স্লোগান দেয়া ছাত্রদের স্কুল থেকে বের করে দেয়ার হুমকিও দেয়া হয়।

আশিক মাহমুদের একজন অভিভাবক জানান, শিক্ষক মোমিন মুন্সী আশিকের মাথা ও কানে জোরে চড়, থাপ্পর মারেন। পরে তাকে লাথিও দেযা হয়। পরে তার ঘড়িও ভেঙে ফেলা হয়।

শোভাযাত্রা শেষে আশিক স্কুলে গেলে তাকে নাস্তাও দেয়া হয়নি। পরে আশিক স্কুল থেকে বাসায় গেলে কয়েক বার বমি করে।

এ ঘটনায় ভোলা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শংকর পালে কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ওই ছাত্র র‌্যালিতে জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করায় তাকে মারধর করা হয়েছে বলে ওই শিক্ষক জানিয়েছেন। আমি দুই পক্ষের বক্তব্য শুনেছি। ঘটনাটির তদন্তে একটি কমিটি গঠন করে ঘটনার সঠিক বিচার করা হবে।

তবে শিক্ষক মোমিন মুন্সী অভিযোগ অস্বীকার করে ঢাকাটাইমসকে বলেন, স্লোগান দেয়ার জন্য ছাত্রকে মারা হয়নি। তিনি বলেন, ওই ছাত্র র‌্যালিতে উচ্ছৃঙ্খলা করছিল। তাই তাকে শাস্তি দেয়া হয়েছে। 

ঢাকাটাইমস/১৮মার্চ/প্রতিনিধি/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত