ডিএসইর শেয়ার বিক্রির ইস্যুতে পুঁজিবাজার টালমাটাল কেন?

সাওগত আলী সাগর
 | প্রকাশিত : ১৯ মার্চ ২০১৮, ১১:৪১

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কৌশলগত বিনিয়োগকারী বাছাইয়ের সঙ্গে বাজারের ওঠানামার কি সম্পর্ক? এতে কি তালিকাভূক্ত কোনো কোম্পানির মৌল শক্তির হ্রাস বৃদ্ধি ঘটবে? ঘটবে না। তা না হলে শেয়ারের দরকে এটি তো প্রভাবিত করার কথা না।

কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে কৌশলগত বিনিয়োগকারী বিনিয়োগ বাছাই নিয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থার সঙ্গে স্টক এক্সচেঞ্জের বিরোধ প্রকাশ পাওয়ার পর থেকেই বাজার নিম্নমুখী হতে শুরু করেছে। সেই নিম্নগতি এখনো থামানো যায়নি।

স্টক এক্সচেঞ্জের শেয়ার কারা কিনবেন তা নিয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থার সঙ্গে স্টক এক্সচেঞ্জের বিরোধই বা হবে কেন? নির্দিষ্ট নিয়মে দরপত্র ডেকে বিনিয়োগকারী বাছাই করা হবে। নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাজ সেখানে সব কিছু নিয়মমতো হচ্ছে কি না সেটা দেখভাল করা।

কিন্তু ঘটনাটা মিডিয়ায় এমনভাবে এসেছে, ডিএসইর সঙ্গে নিয়ন্ত্রক সংস্থার প্রবল দ্বন্দ্ব চলছে- এমন একটা বার্তা দেওয়া হয়েছে। সেটা দিয়েছে ডিএসই। পত্রিকার খবরগুলো পড়ে মনে হয়েছে ডিএসই আর নিয়ন্ত্রক সংস্থা চীন আর ভারতের হয়ে লবি করছেন। ঘটনাটা কি আসলে তাই?

আর এতোদিন পর এসে শোনা যাচ্ছে- নিয়ন্ত্রক সংস্থা ডিএসইর প্রস্তাব মেনেই কাজ করছে। কিন্তু ডিএসইর প্রস্তাবনায়ই ত্রুটি আছে। ডিএসই কি তা হলে অনিয়ম করেই চীনকে তাদের কৌশলগত অংশীদার করতে চেয়েছে? সেটা করার জন্যই নিয়ন্ত্রক সংস্থার সঙ্গে বিরোধের গল্প ফেঁদেছে?

দাবি বা স্বার্থ আদায়ের জন্য ব্রোকাররা বাজারকে জিম্মি করেন- এই অভিযোগ অনেক পুরনো। কৌশলগত অংশিদার বাছাই নিয়ে চাপ দিতেই কি বাজারের গতি নিম্নমুখী করে দেওয়া হয়েছে?

বাই দ্যা ওয়ে, গত তিন মাসে যে তিনটি প্রতিষ্ঠান সবচেয়ে বেশি শেয়ার বিক্রি করেছে- তারা কী পরিমাণ কিনেছে, তার একটি পর্যালোচনা কি করা যায়?

লেখক: কানাডা প্রবাসী সাংবাদিক

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফেসবুক কর্নার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত