বিলিয়ে দিলাম; মন মিলিয়ে

মনদীপ ঘরাই
 | প্রকাশিত : ১৯ মার্চ ২০১৮, ১২:৩৭

ইনিংস বিরতিতে সারাফাত স্যারের ফোন। ভালবাসতে হয়, বিলিয়ে দিতে হয় না। শুরুর উইকেটগুলো...ফাইনালকে ভালবেসেছিলাম। তা জেনেও বিলিয়ে দিয়েছি তামিম, লিটন, সৌম্যর উইকেট, রুবেলের শেষ ওভার আর সৌম্যর শেষ বলটি....সাব্বির আর মিরাজে ডানা মেলার সাধটা জেগেছিল শুরুর অর্ধেকে। তবে তা ক্ষণিকে মিলায়।

‘‘মোমেন্টাম’’ নামক শব্দটা জানেন তো? আর কত মোমেন্টাম পেলে একটা ম্যাচ জেতা যায়? ট্রফিটা ছুঁয়ে দেখা যায়?

উত্তরটা শব্দের সাগরে ডুবে যায়। শ্রীলঙ্কার হয়ে ভারত সমর্থন করা গ্যালারির সাগরে।

আমরা আজ "একা" ছিলাম। শাপের (নাগিন) নাচটা সহ্য হয় নি কারও।

বাঘের মুখ থেকে বেড়ালের ডাক শুনতে পছন্দ করে সবাই। কিন্তু আমরা গর্জে যাই। অন্যের স্বাধীনতার ৭০ বছরে তাদের মাটিতেই নিজেদের স্বাধীনতার মাসের গর্জন করে যাই।

না হয় ছুঁয়ে দেখা হয় নি তোমায়....নিদাহাস।

অর্জন মুশফিকের ছোবল।অর্জন ক্যাপ্টেন সাকিবের লড়াই এবং রিয়াদের গর্জন।

অর্জন... সাকিব আর সৌম্যের মাটির কোলে মাথা রেখে অঝরে অশ্রু বর্ষণ....

কাঁদছি আমিও। হয়ত আপনিও। হয়ত বাংলাদেশের প্রতিটি টেলিভিশন আর সামনে বসা নির্বাক চোখগুলো।

চোখের এই জলগুলো জমিয়ে রেখ বাঘেরা। একদিন এ দিয়েই মন ভেজাবে তোমরা। জয়ের উল্লাসে সেদিন করবো আনন্দ অশ্রু স্নান।

আবার ফোনটা বেজে ওঠে।স্যারের কন্ঠ, " এটা হার নয়।আমরা জিতে গেছি। আমরা বীরের মতো হেরেছি"

ফোনটা রাখতেই টিভিতে অ্যাড "হিরোর দেশ বাংলাদেশ"

কাকতালীয় ব্যপার।তবু দুটোতেই মন মিলিয়ে বলি

" বীরের দেশ বাংলাদেশ"

আর ব্যাকরণেই মিলবে আমাদের প্রত্যয়-

"এমন গৌরবের - #পরাজয়ে_ডরে_না_বীর"

মনদীপ ঘরাই: সরকারি কর্মকর্তা

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফেসবুক কর্নার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত