সেই লর্ড কার্লাইলকে আইনজীবী নিয়োগ দিল বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২০ মার্চ ২০১৮, ১৭:২২ | প্রকাশিত : ২০ মার্চ ২০১৮, ১২:৫৫

বাংলাদেশে মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারের বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্যে সোচ্চার লর্ড এলেক্স কার্লাইলকে বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে বিএনপি।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘বৃটেনে বিএনপির যারা সমর্থক আছে তারা ব্রিটিশ আইনজীবী লর্ড কারলাইলকে নিয়োগ দিয়েছে।’

মঙ্গলবার সকাল ১১টায় নয়াপল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান বিএনপি নেতা।

পোল্যান্ড থেকে যুক্তরাজ্যে অভিবাসিত ইহুদি আইনজীবী লর্ড কার্লাইল বাংলাদেশে মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারের কঠোর সমালোচক। তিনি এই বিচারের বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্যে নানা সভা, সেমিনার এবং ব্রিটিশ সরকারের সঙ্গে দূতিয়ালির চেষ্টা করেছেন।

২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের ‘নিরপেক্ষতা এবং ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় ব্যর্থতার’ জন্য আন্তর্জাতিক তদন্ত দাবি জানান লর্ড কার্লাইল। জেনেভাস্থ ইউনাইটেড নেশনস হাই কমিশন ফর হিউম্যান রাইটস-এর হাই কমিশনার নাভী পিল্লাই বরাবর লিখিত এক চিঠিতে তিনি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারের ক্ষেত্রে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপও চেয়েছিলেন লর্ড কার্লাইল।

আলবদর নেতা মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের ফাঁসি কার্যকর না করার দাবিতে যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশ হাইকমিশনারের কাছে চিঠিও লিখেছিলেন ব্রিটিশ এই আইনজীবী।

২০১৫ সালে বিএনপি-জামায়াত জোটের আন্দোলন চলাকালে বাংলাদেশে ‘গ্রহণযোগ্য’ সরকার গঠনে উদ্যোগ নিতে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থাকে অনুরোধ করেছিলেন লর্ড কার্লাইল।

ফখরুল বলেন, ‘খালেদা জিয়ার মামলা এখন থেকে আইনি পরামর্শ দেয়ার জন্যই বৃটেনের প্রখ্যাত আইনজীবী লর্ড কার্লাইলকে অনুরোধ করা হলে তিনি আমাদের আইনজীবী প্যনেলের সঙ্গে যোগ দিতে সম্মতি জানান।’

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হওয়া বিএনপি চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির আরও চারটিসহ মোট ৩৬টি মামলার তথ্য রয়েছে বিএনপির কাছে। এসব মামলার মধ্যে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় বিচার শেষ পর্যায়ে।

বাকি মামলার মধ্যে এর মধ্যে তাকে কুমিল্লায় বাসে পেট্রল বোমা হামলায় আট জনকে হত্যার ঘটনায় একটি মামলায় গ্রেপ্তারও দেখানো হয়েছে। আরও তিনটি মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে।

খালেদা জিয়ার মামলা পরিচালনায় প্রবীণ আইনজীবী আবদুর রেজ্জাক খানের নেতৃত্বে নিম্ন আদালতে এবং এ কে মোহাম্মদ আলী, মওদুদ আহমদ, খন্দকার মাহবুব হোসেন, জয়নুল আবেদিন, মাহবুব উদ্দিন খোকনের নেতৃত্বে উচ্চ আদালতে একটি প্যানেল আছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘কর্ড কার্লাইল এখন থেকে খালেদার পক্ষে মামলায় পরামর্শ দেবেন। তিনি দীর্ঘ অনেক বছর যাবত আইনি পেশা ও রাজনীতির সঙ্গে নিয়োজিত আছেন। প্রখ্যাত এ আইনজীবী হাউজ অব লর্ডসের সদস্য।’

লর্ড কার্লাইল মূলত কী বিষয়ে কাজ করবেন- জানতে চাইলে ফখরুল বলেন, ‘তিনি খালেদা জিয়ার মামলায় আইনি পরামর্শের সাথে সাথে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার ঠিক থাকছে কি না তা দেখভাল করবেন। এছাড়াও তিনি বেগম জিয়ার মামলর আইনি বিষয়ের সব দিক দেখাশুনা করবেন।’

বিএনপি মহাসচিবের দাবি, খালেদা জিয়ার মামলায় আইনজীবী প্যানেলে যুক্ত হওয়ার হতে পেরে লর্ড কার্লাইল আনন্দিত হয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘আমি মামলার সব বিষয় গুরুত্ব সহকারে পরর‌্যবেক্ষণ করব।’

ফখরুল জানান, লর্ড কার্লাইল ব্রিটেনে দীর্ঘ ২৮ বছর খণ্ডকালীন বিচারকের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ব্রিটিশ হাইকোর্টের বিচারক হিসেবেও যুক্ত ছিলেন। তিনি ৯ বছরেরও বেশি সময় ধরে যুক্তরাজ্যে সন্ত্রাসবিরোধী আইনের স্বাধীন সমালোচক ছিলেন।

২০১২ সালে ব্রিটিশ রাণী কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত হয়ে জাতীয় নিরাপত্তা পরিসেবার জন্য কাজ করেছেন লর্ড কার্লাইল।

ব্রিটিশ এ আইনজীবীকে কেন নিয়োগ দেয়া হয়েছে জানতে চাইলে ফখরুল বলেন, ‘বিশ্ব সম্প্রাদয়ের কাছে খালেদা জিয়ার মামলা ও সাজার বিষয়ে তুলে ধরতে কাজ করবেন লর্ড কার্লাইল।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, আবদুস সালাম, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ।

(ঢাকাটাইমস/২০মার্চ/বিইউ/ডব্লিউবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত