সাত দিনেও আটক হয়নি তাহিরপুরের সেই যুবলীগ নেতা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২১ মার্চ ২০১৮, ২০:১০ | প্রকাশিত : ২১ মার্চ ২০১৮, ১৯:৫৫

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে পাঁচ বছরের শিশু ইয়ামিন মিয়ার ডান হাতের তিনটি আঙ্গুল কেটে ফেলার মূলহোতা যুবলীগ নেতা ও পিআইসি সভাপতি আব্দুল অদুদকে এখনও পুলিশ আটক করতে পারেনি।

অবশ্য গত রবিবার (১৮মার্চ) তার ছোট ভাই আলম মিয়াকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

এ ঘটনায় অদুদ ও তার সহোদর আলম মিয়াকে আসামি করে সোমবার রাত ১১টায় ইয়ামিন মিয়ার বাবা শাহানুর মিয়া মামলা করেছেন।

গত রবিবার সুনামগঞ্জ শহরে এ ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে খেলাঘর আসর।

তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নন্দন কান্তি ধর জানান, পুলিশ এ ঘটনায় আব্দুল অদুদ মিয়ার ছোট ভাই আলম মিয়াকে রবিবার রাতে আটক করে সোমবার দুপুরে জেলহাজতে পাঠিয়েছে। ওই পিআইসি প্রলাতক থাকায় থাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে তাকে গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।

প্রসঙ্গত, সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় মহালিয়া হাওরের ময়না খালি বাঁধে উঠায় গত শনিবার (১৭মার্চ) বিকালে পাঁচ বছরের শিশু ইয়ামিন মিয়ার ডান হাতের তিনটি আঙ্গুল কেটে দেন যুবলীগ নেতা ও মহালিয়ার হাওরের ২৮নং পিআইসির সভাপতি অদুদ।

(ঢাকাটাইমস/২১মার্চ/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত