উত্ত্যক্তে বাধা দেয়ায় শিক্ষককে মারধর: ৩ ছাত্র গ্রেপ্তার

কুমিল্লা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ মার্চ ২০১৮, ১৯:২১

কুমিল্লার নিমসার উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও প্রধান শিক্ষককে পেটানোর ঘটনায় তিন ছাত্রকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার বুড়িচং থানার দেবপুর ফাঁড়ির পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার মাধবপুর গ্রামের মোছলেম উদ্দিনের ছেলে দশম শ্রেণির ছাত্র মো. শাহীন হোসেন, হালগাঁও গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে দশম শ্রেণির ছাত্র মো. মাছুম হাসান ও পাচকিত্তা গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে দশম শ্রেণির ছাত্র মোস্তাক আহম্মেদ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, নিমসার উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষার পূর্বে বিদ্যালয়ের মডেল টেস্ট পরীক্ষায় অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় ক্লাস নেওয়া হতো। এই শিক্ষার্থীদের পাশেই ছিল নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের শ্রেণিকক্ষ। মডেল টেস্টে অকৃতকার্য শিক্ষার্র্র্র্র্র্র্থীদের মধ্যে কয়েকজন বখাটে ছাত্র নবম শ্রেণির মেয়েদেরকে উত্ত্যক্ত করতো। ছাত্রীদের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত বখাটে শিক্ষার্থীদেরকে সর্তক করেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। এই ঘটনার জের ধরে প্রথমে সহকারী শিক্ষক আমির হোসেন ও এর পর দিন প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল হককে মারধর করে বখাটে ছাত্ররা। এছাড়া তারা ককটেল ফাটিয়ে আতংক সৃষ্টি করে।

এই ঘটনায় প্রধান শিক্ষক আব্দুল হক বুধবার বিকালে ১০ জন বখাটে শিক্ষার্থীদের নামে এবং অজ্ঞাত আরো ৫-৬জনকে আসামি করে বুড়িচং থানায় মামলা দায়ের করেন। বুড়িচং থানার দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই শাহাদাত হোসেন তিন বখাটে শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তারের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ঢাকাটাইমস/২২মার্চ/প্রতিনিধি/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত